ফিরে দেখা ২০২১: মূলধারার গণমাধ্যমে ভুয়া খবরের উপস্থিতি!

অন্তত তিনটি করে ভুয়া খবর ছড়িয়েছে সময় টিভি, ইনকিলাব ও আরটিভি আর দুটি করে একাত্তর টিভি, জনকণ্ঠ, ডিবিসি নিউজ ও ইত্তেফাক।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে ভুয়া ও বিভ্রান্তিকর খবর প্রতিরোধে প্রতিষ্ঠানটির থার্ড পার্টি হিসেবে কাজ করার তৃতীয় বর্ষে পা দিল বুম বাংলাদেশ। গত বছর ২০২১ সালে সামাজিক মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের পাশাপাশি প্রতিষ্ঠান হিসেবে নিজেদের ফেসবুক প্ল্যাটফর্মে অর্থাৎ পেজে ভুয়া খবর ছড়িয়েছে, মূলধারার গণমাধ্যমও। বিদায়ী বছরে কোন গণমাধ্যম কতগুলো ভুয়া বা বিভ্রান্তিকর খবর ছড়িয়েছে এই নিবন্ধে এর একটি পরিসংখ্যান তুলে ধরার প্রয়াস রাখা হয়েছে।

এই পরিসংখ্যানে গণমাধ্যমে ভুয়া খবর প্রকাশের সামগ্রিক চিত্র ফুটে উঠবে না। কারণ, মুলধারার গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে এবং বুম বাংলাদেশ খণ্ডন করেছে এমন সব ভুয়া খবরের পরিসংখ্যান নিয়ে এই নিবন্ধ লেখা হচ্ছে। বুম বাংলাদেশ খণ্ডন করেনি কিংবা আমাদের পর্যবেক্ষণের চোখ এড়িয়ে গেছে এমন ভুয়া খবরের উপস্থিতি মূলধারার গণমাধ্যমে থেকে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। নতুবা এমন ভুয়া খবর যা গণমাধ্যমের প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইটে কিংবা প্রিন্ট ভার্সনে বা ইউটিউব সহ অন্য মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে কিন্তু সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে তাদের পেজে পোস্ট করা হয়নি, তা বুম বাংলাদেশের পর্যবেক্ষণের বাইরে ছিল।

কোন গণমাধ্যমে কয়টি করে ভুয়া খবর চিহ্নিত হয়েছে:

সংখ্যার বিচারে বিদায়ী বছর অর্থাৎ ২০২১ সালে অন্তত তিনটি করে ভুয়া খবর ছড়িয়েছে তিনটি মূলধারার গণমাধ্যম, যথাক্রমে-- সময় টিভি, আরটিভি ও ইনকিলাব।

অন্তত দুটি করে ভুয়া খবর ছড়িয়েছে ৪ টি গণমাধ্যম, যথাক্রমে-- একাত্তর টিভি, জনকণ্ঠ, ডিবিসি নিউজ ও ইত্তেফাক।

এছাড়া, অন্তত একটি করে ভুয়া খবর ছড়িয়েছে, জাগো নিউজ ২৪, ঢাকা পোস্ট, চ্যানেল ২৪, ঢাকা টাইমস্ ২৪, এনটিভি, একুশে টিভি, বাংলাদেশ প্রতিদিন, বিজনেস ইনসাইডার, সমকাল, যুগান্তর, জুম বাংলা, বাংলা টিভি, মানবকণ্ঠ ও চ্যানেল আই সহ বেশ কয়েকটি গণমাধ্যম। নিচে পরিসংখ্যানের একটি টেবিল দেখুন--


একই পরিসংখ্যানের আরেকটি টেবিল একটু ভিন্নভাবে দেখুন--


তবে ২০২০ সালের তুলনায় ২০২১ সালে একক গণমাধ্যম হিসেবে ভুয়া ও বিভ্রান্তিকর খবর তুলনামূলক কম দেখা গেছে মূলধারার গণমাধ্যমে। খবর প্রকাশের ক্ষেত্রে গণমাধ্যমগুলো আগের বছরের তুলনায় দায়িত্বশীল ও সতর্ক হয়েছে বলে প্রতীয়মান হচ্ছে। ২০২০ সালে মূলধারার গণমাধ্যমে ভুয়া খবরের উপস্থিতির সাথে বিদায়ী বছরের একটি তুলনামূলক চিত্র দেখুন--


উল্লেখ্য ২০২০ সালের মার্চ মাস থেকে বুম বাংলাদেশ ফেসবুকের পার্টনার হিসেবে ঢাকা ভিত্তিক কার্যক্রম শুরু করে। উক্ত বছরের মার্চ মাস থেকে ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত মূলধারার গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়া ভুয়া ও বিভ্রান্তিকর খবর যা বুম বাংলাদেশ খণ্ডন করেছে, এর ভিত্তিতে তৈরি পরিসংখ্যানের চিত্রটি পূর্বের সালতামামি প্রতিবেদন থেকে নেয়া হয়েছে। বিস্তারিত প্রতিবেদনটি "২০২০: কোন সংবাদমাধ্যমে কতটি ভুয়া খবর প্রকাশিত হয়েছে?" শিরোনামে পড়ুন এখানে

মূলধারার গণমাধ্যমের ভুয়া খবর চিহ্নিত করে খণ্ডন করেছে বুম বাংলাদেশ এমন কয়েকটি ফ্যাক্ট চেক প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট নিচে ধারাবাহিকভাবে দেয়া হল--










এছাড়া, ২০২১ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশের মূলধারার গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়া ভুয়া ও বিভ্রান্তিকর খবর নিয়ে বুম বাংলাদেশের করা ফ্যাক্ট চেক প্রতিবেদনগুলোর শিরোনাম ও লিংক, পাঠকের সুবিধার্থে নিচে তুলে ধরা হল:

১৪ জানুয়ারি: ২০১৯ সালের অপসারণযোগ্য হিজাব আবিস্কারের খবরকে বিভ্রান্তিকরভাবে প্রকাশ

২১ জানুয়ারি: ইসরায়েলে ভ্যাকসিনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে বিভ্রান্তিকর খবর প্রকাশ

২৬ জানুয়ারি: ভারতে ভ্যাকসিন না নিতে স্বাস্থ্যকর্মীদের পালিয়ে বেড়ানোর বিভ্রান্তিকর খবর

৫ ফেব্রুয়ারি: সংবাদ প্রতিবেদনে জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্রের বক্তব্য বিকৃতি

১১ ফেব্রুয়ারি: আল জাজিরার তথ্যচিত্র সরিয়ে নেয়া সংক্রান্ত আদালতের 'ভুয়া আদেশ' প্রচার

১৪ মার্চ: না, পাকিস্তানে ৫ টাকায় বাসমতি চাল ও সাড়ে ১২ টাকায় তেল বিক্রি হচ্ছে না

২৩ এপ্রিল: বিভ্রান্তিকর তথ্য সম্বলিত ফেসবুক পোস্টকে 'ল্যানসেট এর রিপোর্ট' বলে প্রচার

২৭ এপ্রিল: মিঠুন চক্রবর্তীর করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরটি ভুয়া

৯ মে: রোজায় করোনা সংক্রমণ কমে যাওয়া বিষয়ক বিভ্রান্তিকর খবর

১০ মে: ২০২১ পিডিসি নামের গ্রহাণু পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসার খবরটি সত্য নয়

৫ জুলাই: হাইতির বিমান দুর্ঘটনার খবরে হন্ডুরাসের ছবি জুড়ে দিলো একাধিক গণমাধ্যম

Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.