মিঠুন চক্রবর্তীর করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরটি ভুয়া

ফিল্মফেয়ারের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে প্রথমে এই অভিনেতার করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর দেওয়া হলেও পরক্ষণেই তা সংশোধন করে জানানো হয় তিনি সুস্থ আছেন।

বাংলাদেশের একাধিক অনলাইন পোর্টালে দাবি করা হচ্ছে, করোনা আক্রান্ত হয়েছেন নায়ক মিঠুন চক্রবর্তী। দেখুন এমন কিছু খবরের লিংক এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

আজ ২৭ এপ্রিল সময় টিভিতে একটি খবর প্রকাশিত হয়েছে যার শিরোনাম ছিল, করোনায় আক্রান্ত মিঠুন চক্রবর্তী। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের বরাতে খবরটিতে দাবি করা হয়, করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। তিনি হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন। বাড়িতেই তার চিকিৎসা চলছে। দেখুন স্ক্রিনশট-

খবরটি পড়তে ক্লিক করুন এখানে

এছাড়া এনটিভি অনলাইনে প্রকাশিত একটি খবর দেখুন-

আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে করে দেখেছে, মিঠুন চক্রবর্তীর করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরটি সত্য নয়। প্রথমত খবরটিতে মিঠুনের করোনা আক্রান্ত হওয়ার তথ্য প্রকাশ করলেও খবরটিতে কোনো সোর্সের কথা উল্লেখ করেনি। কিন্তু টাইমস অফ ইন্ডিয়ার এক খবরে তার ছেলে মিমো চক্রবর্তীর বরাতে বলা হয়, মিঠুন চক্রবর্তীর করোনা পজিটিভ হওয়ার খবরটি ভিত্তিহীন। আরো বলা হয়, মিঠুন চক্রবর্তী সুস্থ্য আছেন এবং একটি শোতেও কাজ করছেন। দেখুন সেই খবরটির স্ক্রিনশট-


এছাড়া নিউজ১৮ এর একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, মিঠুনের করোনা পজিটিভ হওয়ার খবরটি সত্য নয়। দেখুন-


সেখানে আরো বলা হয়, মূলত ফিল্মফেয়ার এর টুইটার একাউন্টে সর্বপ্রথম মিঠুন চক্রবর্তীর করোনা পজিটিভ হবার দাবিটি পোস্ট করা হয়। পরে অবশ্য ফিল্মফেয়ার আরেকটি টুইটে খবরটিকে ভুয়া বলে দাবি করে এবং আগের টুইটটি সরিয়ে নেয়। দেখুন সেই টুইট-

একইভাবে হিন্দুস্তান টাইমসের বাংলা ভার্সনের এক খবরেও মিঠুনের আক্রান্ত হওয়ার খবরকে গুজব বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। দেখুন এখানে

কিন্তু হিন্দুস্তান টাইমসের সেই খবরটির পুর্বোক্ত ভার্সনেই মিঠুন চক্রবর্তীর করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরটি ছিল। পরবর্তীতে খবরটি এডিট করা হয়। দেখুন এখানে

এছাড়া ভারতের এই সময় পত্রিকাটিতেও মিঠুনের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশ করেছিল। কিন্তু তারাও খবরটি নিরবে সরিয়ে নেয়। লিংক আছে এখানে

অর্থাৎ মিঠুন চক্রবর্তীর করোনা পজিটিভ হওয়ার খবরটি সত্য নয়।

Claim Review :   করোনায় আক্রান্ত মিঠুন চক্রবর্তী
Claimed By :  নিউজ আউটলেটস
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story