বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কি বলেছে 'অজু করোনা ভাইরাসের সর্বোত্তম ঔষধ'?

'অজু হলো করোনা ভাইরাসের সর্বোত্তম ঔষধ'- এমন ভুয়া বক্তব্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নামে ছড়িয়েছে কিছু অনলাইন পোর্টাল

"অজু হলো করোনা ভাইরাসের সর্বোত্তম ঔষধ: বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা" শিরোনামে একটি খবর কিছু অনলাইন পোর্টালে প্রকাশিত হয়েছে। এরকম কয়েকটি পোর্টালে খবরটি দেখা যাবে এখানে, এখানে, এখানেএখানে

খবরটি এপ্রিল মাসের ৮ তারিখে 'আওয়ার ইসলাম' নামে একটি পোর্টালে প্রথম প্রকাশিত হয় "করোনার সর্বোত্তম ঔষধ হলো অজু: বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা" শিরোনামে।



উক্ত খবরটিতে তথ্যসূত্র হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে একটি ইংরেজি অনলাইন 'দ্য ইসলামিক ইনফরমেশন ডট কম' এর একটি প্রতিবেদনকে (Wudhu The Best Medicine For Coronavirus, WHO Asked to Wash 5 Times)

'আওয়ার ইসলাম' এর খবরে বলা হয়েছে-

"করোনা থেকে সুরক্ষা পেতে দৈনিক অন্তত পাঁচবার হাত-মুখ ধোয়ার বিষয়টি ইতিমধ্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) সহ বিশ্বের প্রায় সকল স্বাস্থ্য পরিচর্যা কেন্দ্র ও সংগঠনের প্রধান শিরোনামে পরিণত হয়েছে"।

ফ্যাক্ট চেক:

কিন্তু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা অন্য কোন দায়িত্বশীল প্রতিষ্ঠান থেকে নির্দিষ্ট করে "৫ বার হাত-মুখ ধোয়ার" ব্যাপারে কোন বক্তব্যের অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। বরং করোনাভাইরাস মোকাবেলায় করণীয় হিসেবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে ৭টি নির্দিষ্ট কাজের পর সবাইকে হাত ধোয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এসব পরামর্শের কোথাও 'ওজু করা' বা 'দৈনিক ৫ বার' হাত ধোয়ার কোনো পরামর্শ নেই।


এছাড়াও হাত ধোয়ার ক্ষেত্রে সাথে সাবান বা এলকোহল স্যানিটাইজার ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

এছাড়াও খবরের শিরোনামে "অজু হলো করোনা ভাইরাসের সর্বোত্তম ঔষধ" বলে যে বক্তব্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে বলে দাবি করা হয়েছে তা সংস্থাটির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত কোনো নির্দেশনা বা বিবৃতিতে পাওয়া যায়নি। কোনো নির্ভরযোগ্য সংবাদমাধ্যমেও এমন কোনো খবর প্রকাশিত হয়নি।

অর্থাৎ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বরাতে "অজু হলো করোনা ভাইরাসের সর্বোত্তম ঔষধ" হিসেবে যে খবর 'দ্য ইসলামিক ইনফরমেশন ডট কম' বা 'আওয়ার ইসলাম' এবং অন্যান্য পোর্টাল প্রকাশ করেছে তা ভুয়া।

Claim Review :   অজু হলো করোনা ভাইরাসের সর্বোত্তম ঔষধ: বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা
Claimed By :  Website, Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story