ছবির গোল চিহ্নিত ব্যক্তি হুজাইফা আল মামদূহ নয়

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, ২০১৪ সালে জঙ্গি তৎপরতায় জড়িত সন্দেহে আটক পাঁচ জনের ছবিটি তৎকালে গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের একাধিক আইডি ও পেজ থেকে একটি ছবি পোস্ট করে সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রে (টিএসসি) অনুষ্ঠিত 'কাওয়ালি' গানের আসরের আয়োজকদের অন্যতম হুজাইফা আল মামদূহ'র দাবি করা হচ্ছে। পোস্টগুলোতে দাবি করা হয়, ছবিতে দৃশ্যমান লাল গোল চিহ্নিত পাঞ্জাবি পরা ব্যক্তি হুযাইফা আল মামদূহ নিষিদ্ধ ঘোষিত হিযবুত তাহরীরের নেতা হিসেবে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলেন। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

১৫ জানুয়ারি 'সেই রাজাকার এই রাজাকার' নামের একটি ফেসবুক পেজ থেকে ছবিটি পোস্ট করে লেখা হয়, "এই নেন আপনার কাওয়ালি গানের মূল উদ্যোক্তার আসল চেহারা, নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হিযবুত তাহরিরের হুজাইফাই কিন্তু আপনাদের সিলসিলার প্রাণেশ্বর হুজাইফা; ২০১৬ সালে ডিবির হাতে গ্রেফতার হয়েছিলো।" স্ক্রিনশটে দেখুন--

পোস্টটি দেখুন এখানে, আর্কাইভ দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, পোস্টের বর্ণনায় করা দাবিটি ভুয়া এবং ছবির লাল গোল চিহ্নিত ব্যক্তির সাথে হুজাইফা আল মামদূহ'র সম্পর্ক নেই। প্রকৃতপক্ষে, জঙ্গিবাদের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতারকৃতদের ছবিটি ২০১৪ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল।

রিভার্স ইমেজ সার্চ করার পর, ২০১৪ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত "2 held for trying to join Islamic State" শিরোনামে একটি প্রতিবেদনে ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, ছবিতে দেখা যাওয়া ৫ জন ব্যক্তিকে জঙ্গি তৎপরতার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা আটককৃত ৫ জনের নাম হচ্ছে: আসিফ আদনান, ফজলে এলাহি তানজিল, সাইফুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম শফিক ও মুহাম্মদ হাসানুল্লাহ। এরমধ্যে মো. আসিফ আদনান এবং মো. ফজলে এলাহি তানজিল নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গী সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের দু'জন কথিত সদস্য ও বাকি ৩ জন নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদের (হুজি) সদস্য বলেও জানানো হয় প্রতিবেদনে। স্ক্রিনশট দেখুন--

প্রতিবেদনটি পড়ুন এখানে

বিস্তারিত সার্চের পর, একই বছর ২৬ সেপ্টেম্বর "রাজধানীতে তিনজন গ্রেপ্তার ডিবি বলছে হুজির সদস্য" শিরোনামে প্রথম আলোয় প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনেও ছবিটি যুক্ত করতে দেখা গেছে। প্রতিবেদনে যুক্ত করা ছবির ক্যাপশনে ব্যক্তিদের পরিচয় ক্রমানুসারে লেখা হয়েছে, "ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) হাতে গতকাল গ্রেপ্তার হওয়া আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের দুই সদস্য (ডান থেকে) আসিফ আদনান ও ফজলে এলাহী এবং হরকাতুল জিহাদের আরও তিন সদস্য l" স্ক্রিনশট দেখুন--

প্রতিবেদনটি পড়ুন এখানে

এছাড়া, দৈনিক সমকাল এবং বিবিসি বাংলা-এর দুটি প্রতিবেদনেও তৎকালে আটককৃতদের একই ছবি ও পরিচয় উল্লেখ করা হয়েছিল। বিবিসি বাংলার খবরের স্ক্রিনশট দেখুন--

প্রতিবেদনটি পড়ুন

অর্থাৎ নিশ্চিতভাবেই লাল গোল চিহ্নিত ব্যক্তি হুজাইফা আল মামদূহ নামের কেউ নয়।

সুতরাং ২০১৪ জঙ্গি তৎপরতার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশি অভিযানে আটক পাঁচ জনের একজনের ছবিকে বিভ্রান্তিকরভাবে টিএসসি'তে অনুষ্ঠিত 'কাওয়ালি' গানের আসরের আয়োজকদের অন্যতম হুজাইফা আল মামদূহ'র দাবি করে প্রচার করা হচ্ছে ফেসবুকে, যা ভিত্তিহীন ও বিভ্রান্তিকর।

Updated On: 2022-01-15T13:29:58+05:30
Claim :   এই নেন আপনার কাওয়ালি গানের মূল উদ্যোক্তার আসল চেহারা, নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হিযবুত তাহরিরের হুজাইফাই
Claimed By :  Facebook post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.