ছবিটি ইউরোপে পাড়ি দেয়ার সময় নিহত অভিবাসীদের ব্যাগের নয়

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের পারসন্স স্কুল অব ডিজাইনের একটি প্রদর্শনীর ছবি এটি।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের একাধিক আইডি ও পেজ থেকে দেয়াল জুড়ে টানানো অনেকগুলো ব্যাগের একটি ছবির শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, এই ব্যাগগুলো অবৈধভাবে ইউরোপে আসা মৃত অভিবাসীদের, যা ইতালির ল্যাম্পেডুসা দ্বীপে একটি মিউজিয়ামের ভেতর রাখা আছে। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

গত ১৩ ডিসেম্বর 'Adv Nasim Omar Shathy' নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে ছবিটি পোস্ট করে লেখা হয়, "অবৈধপথে ইউরোপ পাড়ি দিতে গিয়ে সমুদ্রে মারা যাওয়া অভিবাসীদের ব্যাগ সংগ্রহ করে ইতালির ল্যাম্পেডুসা দ্বীপে ইতালিয়ান মিউজিয়ামের ভিতরে রাখা হয়েছে। তথ্যসূত্র : ইন্টারনেট"। স্ক্রিনশটে দেখুন--

পোস্টটি দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, ছবির বর্ণনায় করা দাবিটি বিভ্রান্তিকর। ছবিটি মূলত, যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের পার্সন্স স্কুল অব ডিজাইনের একটি প্রদর্শনীর, যেখানে মরুভূমি পাড় হয়ে মেক্সিকো থেকে আমেরিকায় আসা অভিবাসীদের পরিত্যক্ত জামাকাপড় ব্যাগসহ বেশকিছু জিনিস প্রদর্শন করা হয়।

রিভার্স ইমেজ সার্চ করার পর, ভাইরাল ছবিটি আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থা Agencia EFE-এর ওয়েবসাইটে "Wall of backpacks" set up as immigrant exhibit in opposition to Trump" শিরোনামে ২০১৭ সালে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদনে এই ছবিটি ছাড়াও উক্ত প্রদর্শনীর আর কিছু ছবি যুক্ত করা আছে। স্ক্রিনশট দেখুন--

প্রতিবেদনটি দেখুন এখানে

প্রতিবেদনটি থেকে জানা যায়, ছবিটি 'স্ট্যাট অব এক্সেপশন' নামের প্রকল্পে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্ত থেকে সংগ্রহ করা অভিবাসীদের কাঁধ ব্যাগ ও অন্যন্য জিনিসের শৈল্পিক প্রদর্শনীর।

বার্তা সংস্থা এএফপি'র একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, মিশিগান ইউনিভার্সিটির ইনস্টিটিউট ফর দ্য হিউম্যানিটিজ এর "An Exhibition of the Undocumented Migration Project" নামক প্রকল্পের আওতায় এসব ব্যাগ ও অন্যান্য জিনিসপত্র সংগ্রহ করা হয়েছিল, যা আমান্দা ক্রুগলিয়াক, রিচার্ড বারনেস এবং জেসন ডি লিওন নামের তিন গবেষকের যৌথ প্রকল্প। একি ছবি মিশিগান ইউনিভার্সিটির ওয়েবসাইটে খুঁজে পাওয়া যায়, যা ২০১৭ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত হয়েছিল। স্ক্রিনশট দেখুন--

ছবিটি দেখুন এখানে

২০১৫ সালে মিশিগান হিউম্যানিটিজ নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলেও এই প্রদর্শনীর একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছিল।

অর্থাৎ ছবিটি ইউরোপ পাড়ি দিতে গিয়ে সমুদ্রে মারা যাওয়া অভিবাসীদের নয়, বরং এটি আমেরিকার একটি প্রদর্শনী থেকে তোলা, মেক্সিকো থেকে আমেরিকায় পাড়ি জমানো অভিবাসীদের পরিত্যক্ত জিনিসপত্রের ছবি।

সুতরাং আমেরিকার একটি প্রদর্শনী থেকে তোলা একটি ছবিকে ইতালিয়ান জাদুঘরে সংরক্ষিত ইউরোপ পাড়ি দিতে গিয়ে সমুদ্রে মারা যাওয়া অভিবাসীদের ব্যাগ বলে দাবি করা হচ্ছে, যা বিভ্রান্তিকর।

Claim :   অবৈধপথে ইউরোপ পাড়ি দিতে গিয়ে সমুদ্রে মারা যাওয়া অভিবাসীদের ব্যাগ সংগ্রহ করে ইতালির ল্যাম্পেডুসা দ্বীপে ইতালিয়ান মিউজিয়ামের ভিতরে রাখা হয়েছে।
Claimed By :  Facebook post
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.