মির্জা ফখরুলের ভিডিওতে হাছান মাহমুদের বক্তব্য জুড়ে দিয়ে প্রচার

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের ভয়েসকে মির্জা ফখরুলের ভিডিওর সাথে যুক্ত করে ছড়ানো হচ্ছে।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে "বিএনপি এখন লাইফ সাপোর্টে আছে: মির্জা ফখরুল" শিরোনামে একটি ভিডিও পোস্ট করে সেটিকে মির্জা ফখরুলের বক্তব্য বলে প্রচার করা হচ্ছে। দেখুন এখানে


ভিডিওটিতে শোনা যায় মির্জা ফখরুল বলছেন, "বিএনপির যে পরিস্থিতি, নেতাদের উপরে কর্মীদের আস্থা নেই, আবার নেতাদের মধ্যে নিজেদের ঐক্য নাই। সব মিলিয়ে বিএনপি নিজেই এখন লাইফ সাপোর্টে।"

ভিডিওটিতে ফখরুলের পেছনের ব্যানারের কিছু লেখা আংশিক দেখা যাচ্ছে এর মধ্যে 'এ্যাব' '৩০ অক্টোবর' 'জাতীয় প্রেসক্লাব' ইত্যাদি শব্দ রয়েছে। একই সাথে ভিডিওটিতে সময় টেলিভিশনের লোগো দেখা যাচ্ছে।

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ অনুসন্ধান করে নিশ্চিত হয়েছে মির্জা ফখরুলের বক্তব্য বলে দাবীকৃত ভিডিওটি এডিট করা। মূলত মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের একটি ভিডিওর সাথে তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদের ভয়েস জুড়ে দিয়ে ভিডিওটি তৈরি করা হয়েছে।

গত ৩০ অক্টোবর শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এগ্রিকালচারিস্টস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (এ্যাব) আয়োজিত এক আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের দেয়া বক্তব্যটি সময় টেলিভিশনের ইউটিউব চ্যানেলে খুঁজে পেয়েছে বুম বাংলাদেশ। বক্তব্যের কোথাও মির্জা ফখরুল এরকম কিছু বলেননি। দেখুন এখানে

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে এই অনুষ্ঠানের খবর দেখুন এখানেএখানে। অন্যান্য সংবাদমাধ্যমেও ফখরুলের এমন বক্তব্য দেয়ার কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

মূলত এই ভিডিওটির সাথে ৭ নভেম্বর তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ শনিবার রাজধানীর মিন্টু রোডে সরকারি বাসভবনে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে যে বক্তব্য দেন সেই বক্তব্য জুড়ে দেয়া হয়েছে। যেখানে বিএনপি নেতা গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের এক মন্তব্যের জের ধরে ড. হাছান বলেন "বিএনপির যে পরিস্থিতি, তাদের নেতাদের ওপর কর্মীদের আস্থা নাই আর নেতাদের মধ্যে নিজেদের ঐক্য নাই। সব মিলিয়ে বিএনপি নিজেই এখন লাইফ সাপোর্টে।"

তথ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্য মূলধারার বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমেও এসেছে। দেখুন এখানেএখানে। ভিডিওসহ প্রতিবেদন এখানে। এই ভিডিওতে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ উপরিউক্ত বক্তব্যটি দেন, যা পরে মির্জা ফখরুলের ভিডিওতে তার ভয়েস হিসেবে যুক্ত করা হয়েছে।

Updated On: 2020-12-07T22:06:10+05:30
Claim Review :   বিএনপি এখন লাইফ সাপোর্টে আছে: মির্জা ফখরুল
Claimed By :  Facebook posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story