একসাথে পাঁচ সন্তান জন্মের খবরের স্ক্রিনশটটি এডিটেড

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, আলোচ্য স্ক্রিনশটে দৃশ্যমান পাঁচ নবজাতকের ছবিটি পাঁচ বছর আগে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে।

সামাজিক মাধ্যমে ফেসবুকের একাধিক আইডি থেকে 'ফেসবুকে শেয়ার করা একটি খবরের স্ক্রিনশট' সদৃশ ছবি পোস্ট করে দাবি করা হচ্ছে, একসঙ্গে পাঁচ সন্তানের জন্ম হয়েছে এবং সেই সন্তানদের নাম রাখা হয়েছে আসকে, আমার, মন, ভালো, নেই। এরকম কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানেএখানে

গত ২১ জুন 'Neel Avro' নামের একটি আইডি থেকে এমন একটি স্ক্রিনশট পোস্ট করা হয়, যেখানে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভির ফেসবুকের ভেরিফায়েড পেজের লোগো রয়েছে এবং পাঁচ নবজাতকের ছবি সহ একটি সংবাদের শিরোনাম লিখা আছে--"একসঙ্গে পাঁচ সন্তানের জন্ম, নাম রাখলেন "আসকে-আমার-মন-ভালো-নেই""। পোস্টে বলা হয়, "এবার ঠিক আছে 😃😃😃"। পোস্টের স্ক্রিনশট দেখুন--


ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, আলোচ্য পোস্টে থাকা স্ক্রিনশটটি এডিটেড এবং স্ক্রিনশটে দৃশ্যমান খবরের সাথে যুক্ত পাঁচ নবজাতকের ছবিটি পাঁচ বছরেরও বেশি আগে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে ফিলিস্তিনি এক মায়ের মৃত্যুর সংবাদের সাথে ব্যবহৃত হয়েছে। মূলত পাঁচ নবজাতকের ছবিটির সাথে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভির ফেসবুকের ভেরিফায়েড পেজের লোগো বসিয়ে এবং মনগড়া শিরোনাম লিখে ফটোশপের মাধ্যমে স্ক্রিনশটটি তৈরি করা হয়েছে।

ছবিটি নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে Daijiworld নামে ভারতের একটি অনলাইন পত্রিকায় ২০১৭ সালের ২ মার্চ 'Palestinian mother dies after giving birth to 69 children' শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে আলোচ্য ছবিটি খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদনটির স্ক্রিনশট দেখুন--

প্রতিবেদনটি দেখুন এখানে

'Livehindustan' নামের আরেকটি অনলাইন পত্রিকায়ও "40 साल में 69 बच्चों को जन्म देने वाली फिलिस्तीनी महिला की मौत" শিরোনামে একইদিনে অর্থাৎ ২০১৭ সালের ২ মার্চ একই শিশুদের ছবিসহ একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। স্বয়ংক্রিয় অনুবাদের মাধ্যমে জানা যায়, খবরটিতে বলা হয়েছে ৪০ বছর বয়সে এক ফিলিস্তিনি মা মারা গেছেন, যিনি ৬৯ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। প্রতিবেদনটির স্ক্রিনশট দেখুন--


এর একদিন আগে অর্থাৎ ২০১৭ সালের ১ মার্চ একই ছবি সহ একই নিউজ প্রকাশিত হয় আল-অ্যারাবিয়া পত্রিকার ইংলিশ ভার্সনে। "Woman from Gaza gave birth to 69 kids before her death" শিরোনামে প্রকাশিত ওই খবরে বলা হয়, হিসেব অনুযায়ী প্রয়াত এই মা-ই পৃথিবীর সবচেয়ে উর্বর নারী।

অর্থ্যাৎ পাঁচ বছরেরও বেশি সময় আগে থেকে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে সন্তান জন্মদান সংক্রান্ত খবরের সাথে আলোচ্য ছবিটি ব্যবহৃত হয়েছে।

এদিকে, আরটিভির ফেসবুক পেজ ও ওয়েবসাইটে নানাভাবে খোঁজ করেও এ ধরনের কোন সংবাদ পাওয়া যায়নি। বিষয়টি সম্পর্কে আরো নিশ্চিত হতে আরটিভির অনলাইন ইনচার্জ পলাশ মাহমুদের সাথে যোগাযোগ করে বুম বাংলাদেশ। তিনি স্ক্রিনশটটি দেখে নিশ্চিত করেছেন, এটি এডিটেড। আরটিভি অনলাইনের ওয়েবসাইটে এমন কোন সংবাদ প্রকাশ করা হয়নি এবং ফেসবুক পেজেও এমন কোন খবর পোস্ট করা হয়নি বলেও জানান, পলাশ মাহমুদ।

অর্থ্যাৎ পাঁচ বছরেরও বেশি পুরোনো একটি ছবিটির সাথে আরটিভির ফেসবুক পেজের লোগো ব্যবহার করে মনগড়া শিরোনাম দিয়ে স্ক্রিনশটটি ফটোশপে তৈরি করা হয়েছে। এটি সত্যিকারের কোন খবরের স্ক্রিনশট নয়।

সুতরাং পুরোনো নবজাতকের ছবি দিয়ে পাঁচ সন্তানের জন্মদান ও মনগড়া শিরোনামে এডিটেড স্ক্রিনশট প্রচার করা হচ্ছে ফেসবুকে, যা বিভ্রান্তিকর।

Claim :   একসঙ্গে পাঁচ সন্তানের জন্ম, নাম রাখলেন আসকে আমার মন ভালো নেই
Claimed By :  Facebook post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.