বাংলাদেশের বিমানবন্দরে দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম ই-গেট চালু হয়নি

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, বাংলাদেশের আগেই ভারত ও মালদ্বীপের বিমানবন্দরে ই-গেট চালু করা হয়।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের একাধিক আইডি, পেজ ও গ্রুপে বিভিন্ন পোস্টে দাবি করা হচ্ছে যে, দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম দেশ হিসেবে ই-গেট চালু করেছে বাংলাদেশ। এরকম কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানেএখানে

গত ৮ জুন 'ALAL's Samprotik Hour' নামের একটি গ্রুপে 'Alamin Hosain' নামের একটি আইডি থেকে একটি পোস্ট করে লেখা হয়, "দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম ই-গেট চালু করল বাংলাদেশ"। পোস্টটির স্ক্রিনশট দেখুন---


ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, বাংলাদেশ গত ৭ জুন প্রথমবারের মত হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ই-গেট চালু করে। তবে, সেটি দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে প্রথম দেশ হিসেবে নয় বরং এর আগেই মালদ্বীপ ২০১৬ সালে এবং ভারত ২০২০ সালে তাদের বিমানবন্দরে ই-গেট চালু করে।

কী ওয়ার্ড সার্চ করে মালদ্বীপের সরকারি দপ্তর Maldives Immigration-এ ২০১৬ সালের ২৬ জানুয়ারি 'President Launches Biometric Passport and Immigration Auto-Gate Service' শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পায় যেখানে স্পষ্ট উল্লেখিত হয়েছে, President Abdulla Yameen Abdul Gayoom has this evening launched the new biometric passport and immigration auto-gate service in the Maldives. অর্থ্যাৎ, তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ইয়ামিন আব্দুল গাইয়ুম সেদিন সন্ধ্যায় বায়োমেট্রিক পাসপোর্ট এবং অটো-গেট সার্ভিস উদ্বোধন করেছেন। প্রতিবেদনটির স্ক্রিনশট দেখুন---

প্রতিবেদনটি দেখুন এখানে

আরো সার্চ করে ভারতের 'THE ECONOMIC TIMES' পত্রিকায় ২০২০ সালের ১ জুলাই 'Delhi airport launches E-gate pass facility at Cargo terminal' শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায় যেখানে বলা হয়েছে, মানুষের মধ্যে পারস্পরিক সংস্পর্শ এড়ানোর জন্য দিল্লি বিমানবন্দরের কার্গো টার্মিনালে ই-গেট পাস সুবিধা চালু করা হয়েছে। স্ক্রিনশট দেখুন--

প্রতিবেদনটি দেখুন এখানে

২০২১ সালে দিল্লিতে যাত্রীদের জন্য ই-গেট সেবা চালু করা হয়। ২০২১ সালের ১৩ ডিসেম্বর 'THE TIMES OF INDIA' পত্রিকায় 'DIAL introduces e-boarding facility at Delhi airport' শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে, দিল্লি বিমানবন্দরে Delhi International Airport Limited বা DIAL দিল্লি বিমানবন্দরে যাত্রীদের জন্য প্রথমবারের মতন ই-বোর্ডিং চালু করেছে। প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট দেখুন--

প্রতিবেদনটি দেখুন এখানে

অর্থ্যাৎ, বাংলদেশের বিমানবন্দরে ই-গেট চালু করার আগেই দক্ষিণ এশিয়ার আরো দুটি দেশ মালদ্বীপে ২০১৬ সালে এবং ভারতের বিমানবন্দরে ২০২০ সালে ই-গেট চালু করা হয়।

সুতরাং, বাংলাদেশের বিমানবন্দরে সম্প্রতি চালু করা ই-গেটকে দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম ই-গেট হিসেবে প্রচার করা বিভ্রান্তিকর।

Claim :   দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম ই-গেট চালু করল বাংলাদেশ
Claimed By :  Facebook post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.