বলিউড অভিনেতার বৌদি আত্মহত্যা করেননি

আত্মহত্যা করা সুশান্ত সিং রাজপুতের বৌদি সুধা দেবীর মৃত্যুকেও আত্মহত্যা বলে খবর প্রকাশ করেছে বাংলাদেশি কিছু সংবাদমাধ্যম

গত ১৪ই জুন বলিউডের অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত তার মুম্বাইয়ের বাড়িতে আত্মহত্যা করেন। ভারতের মূলধারার গণমাধ্যম থেকে জানা যায়, ময়নাতদন্তে তার গলায় ফাঁসজনিত মৃত্যু প্রমাণিত হয়েছে।

সুশান্তের মৃত্যুর পর বাংলাদেশের কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয় যে, "দেবরের মৃত্যশোক সহ্য করতে না পেরে সুশান্তের বৌদির আত্মহত্যা"।

মূল ধারার সংবাদমাধ্যমের মধ্যে কালের কণ্ঠ ও বাংলানিউজ এই শিরোনামে খবর প্রকাশ করে। দেখুন নিচের স্ক্রিনশটে--


যদিও পরে বাংলানিউজ এবং কালের কণ্ঠ তাদের সংবাদ শিরোনাম পরিবর্তন করে জানায়, "দেবর সুশান্তের শোকে ভাবির মৃত্যু"। অর্থাৎ, 'আত্মহত্যা'র তথ্যটি সংশোধন করা হয়েছে।


তবে আরও কিছু অখ্যাত অনলাইন পোর্টালে সুশান্তের বৌদি আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রতিবেদন করা হয়েছে। তেমন কয়েকটি প্রতিবেদন দেখুন এখানে, এখানেএখানে

আত্মহত্যা করেননি সুশান্তের বৌদি:

ভারতের মূলধারার একাধিক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, বলিউড অভিনেতার বৌদি তার মৃত্যুশোকে আত্মহত্যা করেননি। বরং অসুস্থ ওই নারী দেবরের মৃত্যুর খবরে শোকাহত অবস্থায় খাওয়া দাওয়া বন্ধ করে দেন। আগে থেকে ক্যান্সারে আক্রান্ত ৪৮ বছর বয়সী সুধা দেবী এতে আরও বেশি অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

সুধা দেবী সুশান্ত সিং এর ভাই অমরেন্দ্র সিং এর স্ত্রী। তারা বিহারের পূর্ণিয়া অঞ্চলে বসবাস করতেন। মূলত বিহারের পূর্ণিয়ার "বারহারা কুঠি" সুশান্ত সিং রাজপুতের পূর্বপুরুষের আবাস।

এ সংক্রান্ত বিস্তারিত খবর প্রকাশ করেছে টাইমস অব ইন্ডিয়া ও আউটলুক ইন্ডিয়া। দেখুন তাদের প্রতিবেদন এখানেএখানে



Claim Review :  দেবর সুশান্তের মৃত্যশোক সহ্য করতে না পেরে বৌদির আত্মহত্যা
Claimed By :  Website, Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story