ধর্ষণের হার: বাংলাদেশ কি বিশ্বের শীর্ষ দেশ?

অঞ্চল ভেদে গুগল অনুসন্ধানের ফলাফল দেখানোর ভিন্নতায় বিভ্রান্ত হয়ে অনেকে বিশ্বে বাংলাদেশকে ধর্ষণের শীর্ষে মনে করছেন।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে বাংলাদেশকে ধর্ষণের ক্ষেত্রে বিশ্বের র‍্যাংকিংয়ে শীর্ষ দেশ হিসেবে উল্লেখ করে পোস্ট করা হচ্ছে। গুগল সার্চ ইঞ্জিনে একটি অনুসন্ধানের ফলাফলের স্ক্রিনশটসহ পোস্টগুলো করা হচ্ছে যেখানে 'Rape statistics in the world' লিখে সার্চ দিলে ফলাফলে সবার উপরে বাংলাদেশের নাম দেখা যাচ্ছে। World Population Review নামক একটি ওয়েবসাইটের পরিসংখ্যানে ২০২০ সালে বাংলাদেশের ধর্ষণের হার প্রতি লাখে ৯.৮২ জন এবং ১১৬৮২ টি ধর্ষণের ঘটনার হিসেব গুগলের ফলাফলে দেখানো হচ্ছে। বাংলাদেশের চেয়ে তুলনামূলক ভালো অবস্থানে যথাক্রমে উরুগুয়ে, জার্মানি ও নেদারল্যান্ডের নাম দেখা যাচ্ছে।

আর্কাইভ দেখুন এখানে

এরকম আরও একটি পোস্টের স্ক্রিনশটে দেখুন--

ফ্যাক্ট চেক:

অনুসন্ধানে দেখা যায়, Rape Statistics By Country 2020 শিরোনামের গুগল সার্চে প্রাথমিক যে ফলাফলটি আসে সেই লিংকটিতে ক্লিক করলে World Population Review এর পুরো প্রতিবেদনটি সামনে আসে। এতে দেখা যায় ধর্ষণের হারের দিক থেকে বিশ্বের শীর্ষ দশটি দেশের তালিকা দেয়া আছে। তালিকাটিতে ধর্ষণের হারে বিশ্বের শীর্ষ দশটি দেশ হিসেবে যথাক্রমে দক্ষিণ আফ্রিকা, বোতসোয়ানা, লেসোথো, সোয়াজিল্যান্ড, বারমুডা, সুইডেন, সুরিনাম, কোস্টারিকা, নিকারাগুয়া ও গ্রেনাডা এর নাম আছে। সবগুলো দেশের নামের পাশে প্রতি লাখে কতজন ধর্ষণের শিকার হন সেই হার দেয়া আছে।
প্রতিবেদনটি দেখুন এখানে
তালিকার পরবর্তী অংশে অন্যান্য দেশের নাম আছে এবং সেখানে একচল্লিশতম দেশ হিসেবে বাংলাদেশের নাম রয়েছে। পরিসংখ্যানটি অনুযায়ী ২০২০ সালে বাংলাদেশের জনসংখ্যা প্রায় সাড়ে ১৬ কোটি এবং প্রতি লাখে ৯.৮২ জন ধর্ষণের শিকার হন বলে দেখানো হয়েছে। সেই সাথে ২০২০ সালে ১১৬৮২ টি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ আছে।
তালিকায় শীর্ষ দশে না থাকার পরও গুগল সার্চের ফলাফলে বাংলাদেশের নাম সবার আগে দেখানোর পিছনে মূলত গুগলের অ্যালগরিদম দায়ী। কারণ কোন অনুসন্ধানের ফলাফল দেখানোর ক্ষেত্রে সার্চকারীর অবস্থানকে আমলে নেয় গুগল অ্যালগরিদম। ফলে সার্চকারীর অবস্থান করা জায়গা সংশ্লিষ্ট তথ্যাদি আগে দেখানো হয়। সে কারণেই মূলত বাংলাদেশে বসে "rape statistics in world" লিখে সার্চ করলে প্রাথমিক সার্চ ফলাফলে বাংলাদেশ সংক্রান্ত তথ্যটি অন্যদের আগে দেখানো হয়েছে। প্রাথমিক ফলাফল দেখে মূল লিংকে ক্লিক না করার ফলে বিভ্রান্ত হয়েছেন সার্চকারী।

সূতরাং উক্ত গুগল সার্চের ফলাফলের বরাতে বাংলাদেশকে ধর্ষণের ক্ষেত্রে বিশ্বে শীর্ষ দেশ হিসেবে প্রচার করা ভুল এবং বিভ্রান্তিকর।

প্রসঙ্গত, World Population Review ওয়েবসাইটে দেয়া আলোচ্য পরিসংখ্যান বা এরকম যে কোনো প্রতিষ্ঠান বা ওয়েবসাইটের পরিসংখ্যান দিয়ে প্রকৃতপক্ষে কোনো দেশের প্রকৃত ধর্ষণের সংখ্যা বা হারের ব্যাপারে উপসংহারমূলক কোনো সিদ্ধান্তে আসার সুযোগ নেই। কারণ এই ওয়েবসাইটে পরিসংখ্যান তুলে ধরার শুরুতেই ডিসক্লেইমার দেয়া হয়েছে যে "Figures do not take into account rape incidents that go unreported to the police." অর্থাৎ, পুলিশের কাছে অভিযোগ জানানো হয়নি এমন ধর্ষণের তথ্য এই পরিসংখ্যানে যুক্ত করা হয়নি। এছাড়া ওয়েবসাইটটিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে যে, সেখানে বাংলাদেশ সংক্রান্ত তথ্যে সর্বশেষ ২০০৬ সালে আপডেট করা হয়েছে।
Updated On: 2020-10-14T14:33:56+05:30
Claim Review :   ধর্ষণের হারের দিক থেকে বাংলাদেশ বিশ্বের শীর্ষ দেশ
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story