মিশরিয় লেখকের ঘটনার সাথে লিবিয় নেতাকে নিয়ে তৈরি মুভির দৃশ্য প্রচার

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, দৃশ্যগুলো 'লায়ন অব দ্য ডেজার্ট' মুভির, যা লিবিয়ার সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী নেতা ওমর মুখতারকে নিয়ে তৈরি।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের একাধিক আইডি ও পেজ থেকে একটি ওয়াজের ভিডিও পোস্ট করা হচ্ছে, যেখানে ভিডিওটির বেশিরভাগ অংশে একটি প্রকাশ্য ফাঁসির দৃশ্য ও মাঝখানে একটি অংশে মিছিলের দৃশ্য দেখা যায় এবং আবহে মিশরিয় লেখক, ইসলামপন্থী রাজনীতিক সাইয়েদ কুতুবের ফাঁসির ঘটনা বর্ণনা করা হয়। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এবং এখানে

গত ৫ ডিসেম্বর 'Khalid Khan' নামের ফেসবুক আইডি থেকে করা পোস্টে লেখা রয়েছে "তাফসীর ফি যিলালীল কোরআন'এর" রচয়িতা "সাঈদ কুতুব শাহীদ (র.)" এর ঘটনা! মিজানুর রহমান আজহারী!" স্ক্রিনশট দেখুন--

পোস্টটি দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, ওয়াজে বর্ণনা করা ঘটনার সাথে ভিডিওটির দৃশ্যের কোন সম্পর্ক নেই। ওয়াজে স্পষ্টভাবেই মিশরিয় ইসলামপন্থী লেখক সাইয়েদ কুতুবের ফাঁসির ঘটনা বর্ণনা করা হচ্ছে। আর দৃশ্য দেখানো হচ্ছে লিবিয়ার সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী আন্দোলনের অবিসংবাদিত নেতা ওমর আল-মুখতারকে নিয়ে নির্মিত সিনেমা "লায়ন অব দ্য ডিজার্ট" এর কিছু দৃশ্য এবং মাঝখানে জুড়ে দেয়া হয়েছে চরমোনাই পীরের নেতৃত্বাধীন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের একটি মিছিলের ফুটেজ।

সার্চ করার পর, লায়ন অব দ্য ডেজার্ট চলচ্চিত্রের সেই অংশটিও খুঁজে পাওয়া গেছে ইউটিউবে, যা ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যায়। সিনেমার উক্ত দৃশ্যে গ্রেপ্তারকৃত ওমর আল-মুখতারকে ফাঁসির মঞ্চে নিতে দেখা যায়। দৃশ্যটিতে ওমর আল-মুখতারের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন অভিনেতা অ্যান্থনি কুইন। ভিডিওটি দেখুন--

উল্লেখ্য লিবিয়ার জাতীয় বীর খ্যাত ওমর আল-মুখতারের নেতৃত্বে ২৩ বছর ধরে ইতালিয় উপনিবেশবাদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম চালিয়েছিল লিবিয়ার বিপ্লবীরা। পরে ১৯৩১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর এক অতর্কিত হামলায় আহত ও বন্দী হন ওমর আল-মুখতার এবং পরে ১৬ সেপ্টেম্বর তাঁকে ফাঁসি দেয়া হয়। ২০২০ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর ওমর আল-মুখতারের শাহাদাত বার্ষিকীতে ইরান ভিত্তিক বাংলা গণমাধ্যম পার্স টুডে একটি ইতিহাস নির্ভর প্রতিবেদন প্রকাশ করে। দেখুন এখানে। মিডেল ইস্ট মনিটর-এর প্রতিবেদনে ওমর আল-মুখতারের একটি ছবি দেখুন-

প্রতিবেদনটি দেখুন এখানে

এদিকে কিওয়ার্ড ধরে সার্চের করে, বুম বাংলাদেশ ভাইরাল ভিডিওটির মাঝখানে জুড়ে দেয়া ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশের বিক্ষোভ মিছিলের ভিডিও ক্লিপটিও খুঁজে পেয়েছে ইউটিউবে। দেখুন--

সার্চ করে উক্ত মিছিলের বেশ কয়েকটি ছবি ফেসবুকে খুঁজে পাওয়া যায়। ফেসবুক পোস্টে ছবিগুলো হেফাজতের হরতালের প্রতি সমর্থন ও গত ১লা এপ্রিল হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে বিশাল সমাবেশ-এর বলে উল্লেখ করা হয়েছে। ফেসবুক পোস্টটি দেখুন--

সুতরাং ওয়াজে বর্ণনা করা ঘটনার সাথে যুক্ত করা একাধিক ফুটেজের কোন সম্পর্ক নেই। অর্থাৎ ভিডিওটি বিভ্রান্তিকর।

Updated On: 2021-12-07T18:53:52+05:30
Claim :   তাফসীর ফি যিলালীল কোরআনএর রচয়িতা সাঈদ কুতুব শাহীদ (র.) এর ঘটনা!
Claimed By :  Facebook post
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.