দেশের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন কে নিয়েছেন?

গত ২৭ জানুয়ারী কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তা প্রথম করোনা ভ্যাকসিন নেন।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে এক নার্সের ছবি ছড়ানো হচ্ছে এবং তাকে বাংলাদেশে প্রথম করোনা ভ্যাকসিন নেওয়া নারী ফাহিমা আক্তার মিম বলে দাবী করা হচ্ছে।

আর্কাইভ করা আছে এখানে


আর্কাইভ করা আছে এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে যে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের তৈরী অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার উদ্ভাবিত ভ্যাকসিন আনুষ্ঠানিকভাবে প্রয়োগ করা শুরু হয় গত ২৭ জানুয়ারী। আর প্রথম ভ্যাকসিন নেন রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তা। প্রথম দিনে মোট ২৬ জনকে টিকার প্রথম ডোজ দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।
মূলধারার সকল সংবাদ মাধ্যমেই এ খবর ফলাও করে প্রকাশ করা হয়েছে। দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এখানে

ছবির এই নারী তাহলে কে?
গুগল রিভার্স ইমেজ অনুসন্ধানে দেখা যায় ফেসবুক পোস্টে ফাহিমা আক্তার মিম বলে দাবী করে ছড়ানো ছবির নারীর নাম বিপাশা আক্তার। তিনি কক্সবাজার সদর হাসপাতালে কর্মরত একজন নার্স। করোনা মহামারীর সময় নিজেদের ঝুঁকির মুখে ফেলে আক্রান্তদের সেবা দেওয়ার জন্য আন্তর্জাতিক রেড ক্রস কমিটি গত বছরের ৪ নভেম্বর নার্সদের এই অবদান নিয়ে একটি ফিচার প্রতিবেদন করে। সেখানেই বিপাশা আক্তারের ছবিটি প্রকাশিত হয়। দেখুন
এখানে

সুতরাং একজন মানুষের ছবিকে ভিন্ন আরেকজনের নাম দিয়ে প্রথম করোনা ভ্যাকসিন নেয়া নারী বলে প্রচার বিভ্রান্তিকর ও অসত্য।
Claim Review :   বাংলাদেশের করোনা ভ্যাকসিন নেওয়া প্রথম নারী। ফাহিমা আক্তার মিম।
Claimed By :  Facebook posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story