ভিডিওটি বাবরি মসজিদের স্থলে বানানো রাম মন্দিরের নয়

বুম বাংলাদেশ নিশ্চিত হয়েছে, এটি পশ্চিমবঙ্গের মালদহের মানিকচক এলাকায় ২০১৯ সালে নদীগর্ভে বিলীন হওয়া একটি মন্দিরের ভিডিও।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের বিভিন্ন পেজ ও আইডি থেকে একটি ভিডিও পোস্ট করে বলা হচ্ছে, ভারতের অযোধ্যায় ভেঙ্গে ফেলা বাবরি মসজিদের স্থানে নির্মিত রাম মন্দির নদীগর্ভে বিলীন হচ্ছে। দেখুন এমন কয়েকটি পোস্ট এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

গত ৩১ অক্টোবর 'কয়রা উপজেলার সংবাদ (News of Koyra Upazila)' নামক ফেসবুক গ্রুপে একটি ভিডিও পোস্ট করে বলা হয়, 'যেখানে বাবরি মসজিদের যায়গায় রাম মন্দির করা হয়েছে,সেই রাম মন্দির আজ পানির সাথে মিশিয়ে যাচ্ছে...। আল্লাহ ছাড় দেয় ছেড়ে দেয় না। আলহামদুলিল্লাহ।'। ভিডিওটিতে নদীর পাড়ের একটি মন্দিরকে পানিতে বিলীন হতে দেখা যাচ্ছে। দাবি করা হচ্ছে, এটি উত্তরপ্রদেশের অযোধ্যার বাবরি মসজিদের স্থলে তৈরি করা রাম মন্দির বিলীন হওয়ার ভিডিও। দেখুন সেই পোস্টের একটি স্ক্রিনশট--


ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, এটি অযোধ্যার কোন মন্দির নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার ভিডিও নয়। মূলত ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মালদহে নদী ভাঙ্গনের কারণে নদীগর্ভে বিলীন হওয়া একটি মন্দিরের ভিডিও এটি। রিভার্স ইমেজ সার্চিং টুল ব্যবহার করে ভিডিওটি সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গেছে। গত ২০১৯ সালের ২৬ অক্টোবর আপলোড করা 'ABP ANANDA' নামক ভারতীয় গণমাধ্যমের ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিওটি পাওয়া গেছে। যার শিরোনাম ছিল, 'Watch: Temple slides into river as erosion hits Malda'। অর্থাৎ বলা হচ্ছে এটি মালদহে একটি মন্দির নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার ভিডিও। দেখুন ভিডিওটি এখানে--

ভিডিওটির বর্ণনায় বলা হয়, ২০১৯ সালে মালদহে দুইদিনের ভারি বৃষ্টিপাতে সেখানে নদীভাঙ্গন দেখা দেয়।

একই কিওয়ার্ড ব্যবহার করে ভিডিওটি সহ ভারতের একটি মূলধারার গনমাধ্যমের প্রতিবেদন পাওয়া গেছে। ২০১৯ সালের ২৫ অক্টোবর নিউজ১৮ এ প্রকাশিত এই প্রতিবেদনের শিরোনাম ছিল, 'মালদহে নদীতে ভাঙন, নদীগর্ভে তলিয়ে গেল মন্দির'। দেখুন--


খবরটিতে আরো বলা হয়, মালদহের মানিকচক এলাকায় ফুলহার নদীতে ভাঙ্গন দেখা দিলে মন্দিরটি নদীতে বিলীন হয়ে যায়। পড়ুন খবরটি এখানে

অর্থাৎ ২০১৯ সালে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে নদীতে বিলীন হওয়া একটি মন্দিরের ভিডিওকে উত্তরপ্রদেশের অযোধ্যার রাম মন্দিরের বলে দাবি করা ভিত্তিহীন।

Claim :   বাবরি মসজিদের যায়গায় রাম মন্দির করা হয়েছে,সেই রাম মন্দির আজ পানির সাথে মিশিয়ে যাচ্ছে...।
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.