পরিমনির রিমান্ডের দাবিতে বিক্ষোভ বলে পুরোনো ভিডিও লাইভ মুডে প্রচার

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, ভিডিওটি ২০২০ সালের ভাস্কর্য-বিরোধী বিক্ষোভের; পরিমনির রিমান্ড দাবিতে বিক্ষোভের কোন খবর পাওয়া যায়নি।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে একটি ভিডিও লাইভ মুডে প্রচার করে বলা হচ্ছে, সম্প্রতি গ্রেফতারকৃত আলোচিত অভিনেত্রী পরিমনির রিমান্ডের দাবিতে রাজপথে নেমেছেন মুসল্লিরা। দেখুন এমন দুটি পোস্ট এখানে এবং এখানে

গত ৬ আগস্ট 'Mst Fatema Akter' নামের একটি ফেসবুক পেজ থেকে একটি ভিডিও লাইভ মুডে প্রচার করে বলা হয়, 'জুমার নামাজ এর পর পরি মনির রিমান্ড দাবিতে রাজপথে মুসলমান!' উল্লেখ্য, গত ৬ আগস্ট কয়েকটি অভিযোগে গ্রেফতার হন চিত্রনায়িকা পরিমনি। সেই পেজে লাইভ করা ভাইরাল ভিডিওটিতে, মুসল্লিদের বায়তুল মোকাররম এলাকাসহ বেশ কিছু এলাকায় বিক্ষোভ করতে দেখা যাচ্ছে। দেখুন ফেসবুক পোস্টটির স্ক্রিনশট--


ফেসবুক পোস্টটির আর্কাইভ দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, এটি পরিমনির রিমান্ডের দাবিতে মুসল্লিদের কোনো বিক্ষোভের ভিডিও নয়। একাধিকভাবে সার্চ করে এই ভিডিওটি ২০২০ সালে নভেম্বর মাসে ইংরেজি সংবাদমাধ্যম 'নিউ এজ' পত্রিকার ইউটিউব চ্যানেলে পাওয়া গেছে। ২০২০ সালের ২৭ নভেম্বর 'Police disperse anti-sculpture rally' শিরোনামে সেই ভিডিওটি আপলোড করা হয়। ভিডিওটি দেখুন--

ইউটিউবের এই ভিডিওটির বর্ণনায় বলা হয়, শুক্রবার (২৭ নভেম্বর ২০২০) ভাস্কর্য তৈরি এবং মাওলানা মামুনুল হককে হেনস্থা করার প্রতিবাদে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে জুমার নামাজ শেষে বিক্ষোভ মিছিল বের করে মুসল্লিরা। এছাড়া সেই মিছিল থেকে ২০ জনের বেশি মাদ্রাসার ছাত্রকেও পুলিশ গ্রেফতার করেছে বলেও উল্লেখ করা হয়।

এর পরদিন অর্থাৎ ২৮ নভেম্বর একাধিক পত্রিকায় সেই মিছিলের খবর ছবিসহ প্রকাশিত হয়। নিউ এজ পত্রিকার খবরটির স্ক্রিনশট দেখুন এখানে--


নিউ এজের প্রতিবেদনটি পড়ুন এখানে

এছাড়া তৎকালে একাধিক সংবাদমাধ্যমে ওই বিক্ষোভ মিছিল ও গ্রেফতার বিষয়ে খবর প্রকাশিত হয়। তন্মধ্যে 'সাম্প্রতিক দেশকাল' পত্রিকায় প্রকাশিত খবরটিতে ফিচার করা ছবিটিও ফেসবুকে সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে পাওয়া গেছে। ভিডিওটির ২ মিনিট ২১ সেকেন্ড থেকে নেয়া একটি ফ্রেমের স্ক্রিনশট ও সাম্প্রতিক দেশকাল পত্রিকায় প্রকাশিত ছবিটি পাশাপাশি দেখুন--


'মামুনুল-ফয়জুল সমর্থকদের বিক্ষোভ, পুলিশের লাঠিপেটা' শিরোনামে ২০২০ সালের ২৭ নভেম্বর প্রকাশিত 'সাম্প্রতিক দেশকাল'র প্রতিবেদনটি পড়ুন এখানে

এদিকে পরিমনির রিমান্ড দাবিতে কোথাও কোন বিক্ষোভের খবর কোন গণমাধ্যমে খুঁজে পায়নি বুম বাংলাদেশ।

উল্লেখ্য, নায়িকা পরিমনিসহ তাঁর সাথে সম্পৃক্ত তিনজনকে এরইমধ্যে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার আদেশ দিয়েছেন আদালত।


বিডিনিউজে প্রকাশিত খবরটির বিস্তারিত দেখুন এখানে

অর্থাৎ ২০২০ সালের ভাস্কর্য-বিরোধী বিক্ষোভ ও লাঠিচার্জের ভিডিওকে সম্প্রতি পরিমনিকে রিমান্ডে নেয়ার দাবির বলে প্রচার করা ভিত্তিহীন।

Claim Review :   জুমার নামাজ এর পর পরি মনির রিমান্ড দাবিতে রাজপথে মুসলমান!
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story