না, এটি ভারতের বর্তমান করোনা পরিস্থিতির ভিডিও নয়

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটির প্রথমাংশে দেখানো ক্লিপটি মূলত ২০২০ সালের ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের একটি দূর্ঘটনার ভিডিও।

ভারতে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। অক্সিজেনের অভাবে রোগীরা হাসপাতালে গিয়েও চিকিৎসা পাচ্ছেন না; তাদের অনেকে হাসপাতালের সামনে অপেক্ষারত অবস্থায় মারা যাচেছন। ভারতের এবং আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে এমন খবর প্রকাশিত হয়েছে গত কয়েকদিনে।

রোগীদের ভোগান্তি ও আহাজারির অনেক ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়েছে। তবে এর মধ্যে কিছু পুরনো ভিডিও বর্তমান পরিস্থিতির সাথে যুক্ত হয়ে অনেকের মাধ্যমে ফেসবুকে ছড়াচ্ছে। তেমন একটি ভাইরাল ভিডিও দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

গতকাল (২৫ এপ্রিল) Smile Bangladesh নামক একটি পেইজ থেকে ৫ মিনিট ২২ সেকেন্ডের ভিডিওটি আপলোড করা হয়। যার ক্যাপশনে দাবি বলা হয়েছে, "ভারতে শুরু হয়েছে মৃত্যুর মিছিল..."।

ভিডিওর প্রথমাংশে দেখা যাচ্ছে, রাস্তায় বেশ কিছু লোক পড়ে আছে এবং তাদেরকে নানাভাবে এম্বুলেন্সে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। দেখুন পোস্টটির স্ক্রিনশট--

পোস্টটি দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, ভাইরাল হওয়া ভিডিওটির সাথে যুক্ত দাবিটি বিভ্রান্তিকর। ভিডিওটির প্রথম অংশে যেই ক্লিপটি দেখানো হয়েছে সেটি সাম্প্রতিক সময়ের কোনো ঘটনার নয়। Vizag City Of Destiny নামের ফেসবুক পেইজ থেকে ২০২০ সালের ৭ মে এই ভিডিওটি পোস্ট করা হয় যার ক্যাপশনে উল্লেখ করা হয়, ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের অবস্থিত আর আর ভেঙ্কাটাপুরাম এলাকার একটি কারখানার কেমিক্যাল-গ্যাস লিক হয়ে বাতাসে ছড়িয়ে পড়ে প্রায় হাজারখানেক ব্যক্তি অজ্ঞান হয়ে পড়েন। দেখুন ভিডিওটি--

ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে

এছাড়া এই ভিডিওটির একটি অংশ একইদিনে টাইমস অফ ইন্ডিয়ার একটি প্রতিবেদনেও পাওয়া যায়। দেখুন--

মূলত ২০২০ সালের ৭ মে ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশে দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক একটি প্লাস্টিক প্লান্টের গ্যাস লিক হয়ে বাতাসে মিশে গেলে আশেপাশে বসবাসরত কয়েকশত মানুষ অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। এতে মারা যায় ১১ জনেরও বেশি। দেখুন এ সংক্রান্ত গার্ডিয়ান পত্রিকার একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন--

প্রতিবেদনটি পড়ুন এই লিংকে


Claim Review :   ভারতে বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল: ভিডিওর ক্যাপশনে দাবি
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story