কুলির পেশায় যোগ দিয়ে জীবনযুদ্ধ করা সন্ধ্যা মারবির খবরটি পুরোনো

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, ২০১৮ সালে গণমাধ্যমে খবরটি প্রকাশিত হয়, নতুন করে এর প্রচার বিভ্রান্তিকর।

সন্ধ্যা মারাবি নামে এক ভারতীয় নারীর কুলির পেশা বেছে নিয়ে নারীর ক্ষমতায়নের উদাহরণ স্থাপনের একটি খবর সম্প্রতি ফেসবুকের বিভিন্ন আইডি ও পেজে থেকে প্রচার করা হচ্ছে। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

গত ২১ সেপ্টেম্বর 'Ekhon Barta' নামের পেজ থেকে একটি অনলাইন পোর্টালের লিংক পোস্ট করে বলা হয়, "স্বামীর মৃ-ত্যুর পর কুলির কাজ করে বাচ্চাদের পড়াশোনা খাওয়ানো খরচ একাই জোগাড় করে এক যোদ্ধা মায়ের জীবন কাহিনী জানলে চোখে জল চলে আসবে"।

পোস্টটি দেখুন এখানে

হুবহু একই শিরোনামে প্রকাশিত অনলাইন পোর্টালের ওই খবরটির ডেটলাইন 'September 11, 2021' এবং বর্ণনায় ঘটনাটি মধ্যপ্রদেশের কাটনি রেলওয়ে স্টেশনের বলে উল্লেখ করা হয়েছে। খবরটি প্রকাশের ডেটলাইন ও ফেসবুকে পোস্ট করার সময় দেখে স্বাভাবিকভাবে খবরটি সাম্প্রতিক বলে মনে হচ্ছে।

খবরটি দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, খবরটি সাম্প্রতিক নয়।

বিভিন্ন কিওয়ার্ড সার্চ করে দেখা গেছে, ২০১৮ সালে ভারত ও বাংলাদেশের একাধিক গণমাধ্যমে মধ্যপ্রদেশের কাটনি স্টেশনের সন্ধ্যা মারাবীকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হতে দেখা গেছে। তন্মধ্যে ভারতের প্রভাবশালী বাংলা দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকার অনলাইন ভার্সনে "সন্ধ্যাই দেশে প্রথম মহিলা মালবাহক" শিরোনামে ২০১৮ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, "জবলপুরের কুন্দম গ্রামের বাসিন্দা সন্ধ্যার স্বামী মারা যান বছর দু'য়েক আগে। পরিবারে স্বামীই ছিলেন একমাত্র রোজগেরে। ফলে সংসার সামলাতে মালবাহকের কাজ শুরু করেন তিন সন্তানের মা সন্ধ্যা।"

খবরটি দেখুন এখানে

পাশাপাশি একই বছর ১৩ মার্চ সন্ধ্যা মারাবিকে নিয়ে "Meet Sandhya Marawi, India's 1st Woman Coolie Who's Breaking Stereotypes To Earn For Her Family" ইন্ডিয়া টাইমসে প্রতিবেদন প্রকাশিত হতে দেখা গেছে। যদিও সন্ধ্যা মারাবি ভারতের প্রথম নারী কুলি বলে কৃত দাবিটি আলাদাভাবে যাচাই করেনি বুম বাংলাদেশ।

খবরটি দেখুন এখানে

অর্থাৎ ২০১৮ সালের একটি পুরোনো খবর অপ্রাসঙ্গিকভাবে নতুন ডেটলাইনে বিভিন্ন অনলাইন পোর্টালে প্রকাশ করা হচ্ছে, যা বিভ্রান্তিকর।

Claim :   এক যোদ্ধা মায়ের জীবন কাহিনী জানলে চোখে জল চলে আসবে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.