ভিন্ন ঘটনার ছবি দিয়ে বিমানে শিশু জন্মের পুরোনো খবর প্রকাশ

টার্কিশ এয়ারলাইন্সের ঘটনার ছবি দিয়ে ২০১৭ সালের খবর নতুন করে প্রকাশ করছে বেশ কিছু অনলাইন পোর্টাল।

সামাজিক মাধ্যমে একাধিক অনলাইন পোর্টালের খবরে দাবি করা হচ্ছে, ৩৫ হাজার উঁচুতে বিমানে এক শিশু জন্ম নিলে তার ভ্রমণ ফ্রি করে দেয় উক্ত বিমান কর্তৃপক্ষ। দেখুন এমন কিছু পোস্টে এখানে, এখানে এবং এখানে

গত ৫ মার্চ 'সময় নিউজ ২৪ ঘন্টার খবর' নামের গ্রুপে একটি খবর পোস্ট করা হয়। খবরটিতে বলা হয়, ভারতের বেসরকারি এয়ারলাইন্স জেট এয়ারওয়েজে এক শিশু জন্ম নিলে বিমান কর্তৃপক্ষ তার আজীবন ভ্রমণ ফ্রি করে দেয়। আরো বলা হয় বিমানটি সৌদি আরব থেকে ভারতে আসছিল। দেখুন পোস্টের স্ক্রিনশট-

পোস্টটির আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে

এছাড়া পোস্টকৃত খবরটির আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, শিশু জন্মের পর বিমানে ভ্রমণ ফ্রি করে দেয়ার খবরটি বিভ্রান্তিকর।

খবরে শিশুসহ বিমানের যে ছবি দেখা যাচ্ছে সেটি রিভার্স সার্চ করে দেখা গেছে, এটি ভারতের কোনো বেসরকারি এয়ারলাইন্সের ঘটনা নয়। মূলত ২০১৭ সালের ৭ এপ্রিল 'নাফি দিয়াবি' নামের একজন সন্তানসম্ভবা নারী আফ্রিকার গিনি থেকে বুরকিনা ফাসো যাওয়ার পথে টার্কিশ এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে সন্তান জন্ম দেন। পরবর্তীতে টার্কিশ এয়ারলাইন্স তাদের অফিশিয়াল টুইটার হ্যান্ডেলে এই খবরটি ছবিসহ প্রকাশ করলে ঘটনাটি ভাইরাল হয়। দেখুন সেই টুইট-

এ সংক্রান্ত গার্ডিয়ানের একটি প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট দেখুন--

খবরটি পড়ুন এখানে

তবে একই বছরে ভারতের জেট এয়ারওয়েজের বিমানেও শিশু জন্মের ঘটনা ঘটেছিল। বিবিসির ২০১৭ সালের ১৯ জুনের একটি প্রতিবেদনে এ ব্যাপারে বিস্তারিত উল্লেখ করা হয়। খবরটিতে বলা হয়, সৌদি আরব থেকে ভারত আসার পথে ২৫ হাজার ফুট উচু বিমানে এক শিশু জন্ম নেয়। পরবর্তীতে জেট এয়ারওয়েজ কর্তৃপক্ষ শিশুটির আজীবন ভ্রমণ ফ্রি করে দেয়ার ঘোষণা দেয়। দেখুন সেই খবরের স্ক্রিনশট--

খবরটি দেখতে ক্লিক করুন এখানে

অর্থাৎ খবরটিতে ভিন্ন ঘটনার ছবি দিয়ে পুরোনো খবর নতুন করে প্রকাশ করা হচ্ছে যা বিভ্রান্তিকর।

Claim Review :   ৩৫ হাজার ফুট উঁচুতে মধ্য আকাশে জন্ম নিলো শিশু, আজীবন আকাশ ভ্রমণ ফ্রি
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story