যুক্তরাজ্যের পরীক্ষায় বাংলাদেশি চিকিৎসকের সাফল্যের খবরটি পুরোনো

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, এমআরসিপি পরীক্ষায় ১ হাজারে ৯০৬ নম্বর পাওয়ার খবরটি ২০২০ সালে একাধিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছিল।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে একটি খবর শেয়ার করে বলা হচ্ছে, যুক্তরাজ্যের পরীক্ষায় ১০০০-এ ৯০৬ পেলেন বাংলাদেশি ডাক্তার। দেখুন এমন একটি পোস্ট এখানে

গত ৮ সেপ্টেম্বর 'BCS Preparation & All Job' নামের ফেইসবুক পেজ থেকে একটি খবরের লিংক শেয়ার করা হয় যার শিরোনাম, "যুক্তরাজ্যের পরীক্ষায় ১০০০-এ ৯০৬ পেলেন বাংলাদেশি ডাক্তার"। গত ৪ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত এই খবরটির বিস্তারিত অংশে বলা হয়, যুক্তরাজ্যের 'মেম্বারশিপ অব দ্য রয়েল কলেজস অব ফিজিশিয়ান্স অব দ্য ইউনাইটেড কিংডম' (এমআরসিপি) পরীক্ষায় সাফল্য পেয়েছেন বাংলাদেশি ডাক্তার জেসি হক। এতে আরো বলা হয়, প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে এই পরীক্ষার পার্ট-২ তে ১ হাজার নম্বরের মধ্যে ৯শ নম্বরের মাইলফলক অতিক্রম করেছেন সেই চিকিৎসক। দেখুন সেই পোস্ট এর স্ক্রিনশট--

খবরটির বিস্তারিত অংশের স্ক্রিনশট দেখুন-

আর্কাইভ দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, চিকিৎসক জেসি হকের এমআরসিপি পরীক্ষায় কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের খবরটি পুরোনো। ২০২০ সালে বাংলাদেশের একাধিক গণমাধ্যমে এই খবরটি প্রকাশিত হয়েছিল। তন্মধ্যে 'এমআরসিপি পরীক্ষায় বাংলাদেশি চিকিৎসকের অভাবনীয় সাফল্য' শিরোনামে যুগান্তরে একটি বিস্তারিত খবর প্রকাশিত হয় ২০২০ সালের ২৯ নভেম্বর। খবরটিতে বলা হয়, চিকিৎসক জেসি হক ইংল্যান্ডের এমআরসিপি (মেম্বারশিপ অব দ্য রয়েল কলেজস অব ফিজিশিয়ান্স অব দ্য ইউনাইটেড কিংডম) পরীক্ষায় ৯০৬ নাম্বার পেয়ে সারা বিশ্বের সব প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে প্রথম হয়েছেন। বর্তমানে শরীয়তপুর জেলার জাজিরা উপজেলা হাসপাতালে মেডিকেল অফিসার হিসেবে কর্মরত আছেন তিনি। দেখুন সেই পোস্টের স্ক্রিনশট--

পরবর্তীতে ২০২০ সালের ১ ডিসেম্বর একই খবর প্রকাশ করে বাংলা ট্রিবিউন। 'বিশ্বকে পেছনে ফেলে প্রথম বাংলাদেশের চিকিৎসক' শিরোনামের খবরে বাংলা ট্রিবিউন জানায়, তিনি জেসি হক নামে পরিচিত হলেও তার প্রকৃত নাম মাহমুদুল হক জেসি। দেখুন বাংলা ট্রিবিউনের খবরটি এখানে--

খবরটি পড়ুন এখানে

অর্থাৎ বাংলাদেশি ডাক্তারের কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফলের পুরোনো সংবাদমূল্যহীন খবরকে অপ্রাসঙ্গিকভাবে নতুন করে প্রকাশ করা হচ্ছে, যা বিভ্রান্তিকর।

Claim Review :   যুক্তরাজ্যের পরীক্ষায় ১০০০-এ ৯০৬ পেলেন বাংলাদেশি ডাক্তার
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story