রোগীকে নিয়ে ডাক্তারের অশালীন মন্তব্যের অভিযোগটি পুরনো

এক বছর আগে সামাজিক মাধ্যমে স্কয়ার হাসপাতালের এক ডাক্তারকে নিয়ে তোলা অভিযোগটি ভাইরাল হয়েছিল।

'মহিলা ডাক্তার আমার পেশির পরীক্ষা করে বলল,'তোমাকে ধ'র্ষণ করা প্রয়োজন' শিরোনামের একটি পোস্ট সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে ছড়ানো হচ্ছে যেখানে বিভিন্ন অনলাইন পোর্টালের এ সংক্রান্ত খবরের লিঙ্কও সংযুক্ত করে দেয়া আছে। এমন দুটি পোর্টালের খবর দেখুন এখানেএখানে

আর্কাইভ করা আছে এখানে

আরেকটি পোস্ট দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:
বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে যে খবরটি পুরনো। মূলধারার একটি সংবাদমাধ্যমে এ সংক্রান্ত একটি খবর ২০২০ সালের ১৩ জুলাই প্রকাশিত হয়ঢাকা ট্রিবিউনে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে আফসানা বুশরা নামের এক নারীর ফেসবুক পোস্টের বরাতে বলা হয়-
''রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে এক চিকিৎসকের বিরুদ্ধে নারী রোগীকে অশালীন মন্তব্য করার অভিযোগ উঠেছে। তবে অভিযুক্ত চিকিৎসক এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।''

২০২০ সালের ১৩ জুলাইয়ের ঢাকা ট্রিবিউনের প্রতিবেদন অনুযায়ী-

''ঘটনার সূত্রপাত ঘটে যখন গত শনিবার (১১ জুলাই) ২১ বছর বয়সী বুশরা যৌনাঙ্গের "ভিজিনিসমাস" নামক এক অসুস্থতার জন্য স্কয়ার হাসপাতালের প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শক ডা. কাজী শামসুন নাহারের কাছে যান।

রোগটি পরীক্ষার এক পর্যায়ে ডাক্তারের কারণে যৌনাঙ্গের পেশীতে তীব্র ব্যাথা অনুভূত হলে, ডা. শামসুন নাহার এই মন্তব্য করেন বলে বুশরা ফেসবুকে জানান।

পরে বুশরা বিষয়টি সংক্ষিপ্তভাবে তার ফেসবুক প্রোফাইলে তুলে ধরেন।''

মূলধারার অন্যান্য সংবাদমাধ্যমেও এ ব্যাপারে খবর প্রকাশিত হয়। দেখুন এখানে

এই খবরকেই বিভিন্নভাবে কিঞ্চিত পরিবর্তন-পরিবর্ধন করে কোন প্রাসঙ্গিকতা ছাড়াই বিভিন্ন অনলাইন পোর্টালে পুনরায় প্রকাশ করা হচ্ছে।

সুতরাং, অপ্রাসঙ্গিকভাবে পুরনো খবরকে নতুন করে প্রকাশ করে ছড়ানো বিভ্রান্তিকর।

Claim Review :   মহিলা ডাক্তার আমার পেশির পরীক্ষা করে বলল,’তোমাকে ধ’র্ষণ করা প্রয়োজন’
Claimed By :  Online portals
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story