ভিডিওটি সদ্য প্রয়াত রাণী এলিজাবেথের নয়

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, ফরাসি ভাষার একটি পুরোনো চলচ্চিত্রের ক্লিপকে রাণী এলিজাবেথের ভিডিও হিসেবে প্রচার করা হচ্ছে।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের একাধিক আইডি, পেজ ও গ্রুপে একটি ভিডিও শেয়ার করে বলা হচ্ছে, ভিডিওটি ব্রিটেনের সদ্য প্রয়াত রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের। এরকম কয়েকটি পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানেএখানে

গত ৯ সেপ্টেম্বর "I Love Allah" নামের একটি ফেসবুক পেজে একটি ভিডিও শেয়ার করে বলা হয়, "এই সেই জালিম রাণী, যার মৃত্যুকে নিয়ে কিছু মুসলিমরাও শোকাহত"। ফেসবুক পোস্টটির স্ক্রিনশট দেখুন--


ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, আলোচ্য ভিডিওটি ফ্রান্সের লুমিয়ের ব্রাদার্সের তৈরি করা একটি চলচ্চিত্রের অংশ। ১৮৯৯ ও ১৯০০ সালে চলচ্চিত্রটি তৈরি হয় এবং ১৯০১ সালে এটি প্রথম প্রদর্শিত হয়।

ভিডিওটি থেকে কি-ফ্রেম কেটে নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে ইউটিউবে Early Cinema নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলে ২০২০ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত "Vietnamese Children (1900) - by Gabriel Veyre" শিরোনামে একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়, যেটি আলোচ্য ভিডিওটির সাথে হুবহু মিলে যায়। ওই ইউটিউব ভিডিওর ডেস্ক্রিপশন থেকে জানা যায়, ১৮৯৯-১৯০০ সালের মধ্যে লুমিয়ের ব্রাদার্সের চলচ্চিত্র প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত হয়ে ফরাসি চলচ্চিত্রকার Gabriel Veyre-র তৈরি করা চলচ্চিত্র Vietnamese Children থেকে আলোচ্য ভিডিওটি নেওয়া হয়েছে। ইউটিউব ভিডিওটি দেখুন--

ইউটিউব ভিডিওটির ডেস্ক্রিপশন থেকে জানা যায়, ফ্রান্সের ফটোগ্রাফি ও মোশন পিকচার্স প্রতিষ্ঠান লুমিয়ের ব্রাদার্স ছিল এই চলচ্চিত্রটির পৃষ্ঠপোষক, যারা তৎকালীন স্থিরচিত্র জগতে অনেক বড় বড় পরিবর্তন এনে দিয়েছিল। প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার অগাস্ট লুমিয়ের ও লুই লুমিয়েরের অন্যতম একটি কাজ ছিল চলচ্চিত্রের উদ্ভাবনে অবদান রাখা। কি ওয়ার্ড সার্চ করে Lumière company-র ওয়েবসাইট খুঁজে পাওয়া যায় যেখানে "Annamese children collecting sapeques in front of the Ladies' Pagoda" শিরোনামে একটি নিবন্ধ খুঁজে পাওয়া যায় যেখানে আলোচ্য ক্লিপটির ধারণকাল, কাস্টিং ইত্যাদি সম্পর্কে বিস্তারিত লেখা হয়েছে। ওই নিবন্ধ থেকে জানা যায়, ১৮৯৯ সালের ২৮ এপ্রিল থেকে ১৯০০ সালের ২ মার্চ পর্যন্ত সময়ের মধ্যে সিনেমাটি তৈরি করা হয় এবং ১৯০১ সালের ২০ জানুয়ারি "Indo-Chine : Annamese children picking up cash in front of the ladies' pagoda" শিরোনামে সিনেমাটি প্রদর্শিত হয়। এতে মিসেস পল ডুমার এবং তার মেয়ে অভিনয় করেছেন। স্ক্রিনশট দেখুন--

নিবন্ধটি দেখুন এখানে

আরো সার্চ করে "iconaut" নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলে ২০২১ সালের ২৮ নভেম্বর "Lumière: Annamese children picking up coins in front of the Ladies' Pagoda (1900)" শিরোনামে প্রকাশিত একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায়। ওই ভিডিও আর আলোচ্য ভিডিওটি হুবহু এক। ভিডিওটির ডেস্ক্রিপশন থেকে জানা যায়, লুমিয়ের কোম্পানীর ক্যামেরায় ধারণকৃত ১২৭৪ নম্বর এই চলচ্চিত্রটি Gabriel Veyre ভিয়েতনামে গিয়ে ধারণ করেন। চলচ্চিত্রটির শুরুতেই দেখা যায়, Gabriel Veyre এর এই চলচ্চিত্রটি ধারণ করা হয় ১৯০০ সালে। ইউটিউব ভিডিওটি দেখুন--

এদিকে কি-ওয়ার্ড সার্চ করে জানা যায়, ব্রিটেনের সদ্যপ্রয়াত রাণীর জন্মের সময়কাল হল ১৯২৬ সাল। তিনি ১৯২৬ সালের ২১ এপ্রিল লন্ডনে জন্মগ্রহণ করেন। তাই ১৯০০ সালের চলচ্চিত্রে অভিনেত্রী হিসেবে ১৯২৬ সালে জন্ম নেওয়া রাণীর পক্ষে অংশগ্রহণ করা অস্বাভাবিক ব্যাপার। এছাড়া, ভিডিওটি বাস্তবসম্মতও নয় বরং একটি সিনেমার ভিডিও ক্লিপ।

সুতরাং, ১৯০০ সালের একটি চলচ্চিত্রের ভিডিও ক্লিপকে রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের ভিডিও বলে প্রচার করা হচ্ছে, যা বিভ্রান্তিকর।

Claim :   এই সেই জালিম রাণী, যার মৃত্যুকে নিয়ে কিছু মুসলিমরাও শোকাহত
Claimed By :  Facebook post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.