না, কভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন/ওষুধ আবিষ্কৃত হয়নি

"অবশেষে করোনার ওষুধ বা ভ্যাকসিন আবিষ্কার বলে একটি খবর সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে যা সঠিক নয়

"অবশেষে করোনার ওষুধ আবিষ্কার: ১৫ রোগীর ওপর পরীক্ষায় সবাই সম্পূর্ণ সুস্থ" এমন একটি খবর সামাজিক মাধ্যমে হাজারো মানুষ শেয়ার করছেন।

theearthexpress.com নামক একটি অনলাইন পোর্টালে প্রকাশিত খবর "অবশেষে করোনার ওষুধ আবিষ্কার: ১৫ রোগীর ওপর পরীক্ষায় সবাই সম্পূর্ণ সুস্থ" শিরোনামের একটি খবর সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে যা সঠিক নয়টি ১৭ মার্চ "Ziaul Hoque Polash - Fans Group" এ পোস্ট করা হলে সেটি ৩৩০০ বারের বেশি শেয়ার হয়েছে। এছাড়া অন্যান্য ফেসবুক গ্রুপ ও পেইজ থেকে এই খবর ছড়ানো হয়েছে।


theearthexpress.com ব্রিটেনের ডেইলি মেইলের বরাতে এই প্রতিবেদনটিপ্রকাশ করেছে।

ডেইলি মেইলের এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনটি পড়তে ক্লিক করুন এখানে

কিন্তু ডেইলি মেইল তাদের প্রতিবেদনের কোথাও এমন তথ্য দেয়নি যে, করোনা ভাইরাস (কভিড-১৯) এর কোনো ধরনের 'ওষুধ' আবিষ্কৃত হয়েছে।

মেইলের প্রতিবেদনের দীর্ঘ শিরোনাম হচ্ছে, "Have doctors found a drug to fight coronavirus? Two experts reveal how experimental antiviral remdesivir saved one woman who was in critical condition and helped 14 infected Diamond Princess passengers".

প্রথমেই এখানে প্রশ্ন আকারে তুলে ধরা হয়েছে, "ডাক্তাররা কি করোনার বিরুদ্ধে লড়ার জন্য একটি ওষুধ পেয়ে গেলেন?" নিশ্চিত কোনো তথ্যের ক্ষেত্রে এভাবে প্রশ্নবোধকভাবে জিজ্ঞাসা করার প্রয়োজন ছিলো না।

দ্বিতীয়ত, শিরোনামেই স্পষ্ট বলা হয়েছে একজন মূমুর্ষ নারী রোগীর ওপর প্রয়োগ করে ভালো ফল পাওয়া ওষুধটি একটি ''পরীক্ষামূলক ওষুধ'' (experimental drug)। অর্থাৎ, এটি ব্যবহার করা হয়েছে রোগীর ওপর তা কতটা কার্যকরি হয় তা যাচাই করার উদ্দেশ্যে।

যে এক্সপেরিমেন্টাল ড্রাগটির নাম জানিয়েছে ডেইলি মেইল সেটি হলো remdesivir. এটি ২০১৫ সালে ইবোলা মহামারির সময় তৈরি করা হয় এবং পরে সার্স ভাইরাস প্রতিরোধেও এটি বেশ কার্যকর ছিল। করোনা রোগীদের কারো কারো ওপরও ইতিবাচক ফল দিয়েছে এই এন্টি ভাইরাল ড্রাগটি।

remdesivir কোনভাবেই করোনার প্রতিষেধ বা ওষুধ নয়। তবে করোনার প্রতিষেধক না থাকার কারণে অন্যান্য আরও বেশ কিছু ওষুধের সাথে করোনা রোগীদের ওপর পরীক্ষামূলকভাবে এটিও প্রয়োগ করা হয়েছে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন হাসপাতাল ও ল্যাবে।

সংশ্লিষ্ট ডাক্তারের সাক্ষাৎকারসহ এ বিষয়ে বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে science ম্যাগাজিন। পড়ুন এই লিংকে

theearthexpress.com এর প্রতিবেদনের শিরোনামের শেষাংশে বলা হয়েছে, "১৫ রোগীর ওপর পরীক্ষায় সবাই সম্পূর্ণ সুস্থ"। এটিও ডেইলি মেইলের তথ্যের সাথে মিলে না। মেইল জানিয়েছে, জাপানে যুক্তরাষ্ট্রের জাহাজ Diamond Princess এ থাকা ১৪ জন রোগী করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুপথযাত্রী ছিলেন। তাদের ওপর remdesivir প্রয়োগের ফলে অর্ধেকের মতো ব্যক্তি পুরোপুরি সেরে ওঠেছেন।

লক্ষ্যণীয় বিষয় হলো, theearthexpress.com এর প্রতিবেদনের শিরোনামে তথ্য বিকৃতি করা হলেও মূল প্রতিবেদনে ডেইলি মেইলের অনুরূপ তথ্য দেয়া হয়েছে।


ফেসবুক পোস্টে ভ্যাকসিন (প্রতিষেধক) আবিষ্কারের দাবি:

এদিকে কিছু ফেসবুক পোস্টে দাবি করা হয়েছে, কিউবা করোনার প্রতিষেধক বা ভ্যাকসিন আবিষ্কার করেছে। যেমন "রাজা অধিকারী" নামের একজনের পোস্টে বলা হয়েছে--

"বিশ্বত্রাস করোনার প্রতিষেধক "ইন্টারফেরন আলফা টু - বি" আবিষ্কার করলো বামপন্থী রাষ্ট্র কিউবা। লাল সেলাম কিউবা।"



প্রকৃতপক্ষে, Interferon Alpha 2b নামক ওষুধটিও একটি এন্টি ভাইরাল ড্রাগ। এটি ১৯৭৯ সালে চীন-কিউবার যৌথ উদ্যোগে এটি তৈরি করা হয়। বায়োলোজিস্ট Charles Weissmann এটি উদ্ভাবন করেন। ক্যান্সারসহ বিভিন্ন ইনফেকশনের ক্ষেত্রে Interferon Alpha 2b ব্যবহৃত হয়। এটিও remdesivir এর মতো করোনা আক্রান্ত রোগীদের ওপর পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করা হচ্ছে।

Updated On: 2020-04-12T19:18:46+05:30
Claim Review :  অবশেষে করোনার ভ্যাকসিন/ওষুধ আবিষ্কৃত হয়েছে।
Claimed By :  Facebook Post, News Portal
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story