সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনের সাথে ভুল তথ্য যোগ করে প্রচার

সময় টিভির একটি প্রতিবেদন পোস্ট করে সাথে বিভ্রান্তিকর তথ্য যুক্ত করা হয়েছে একটি ফেসবুক পেইজে

ফেসবুকে একটি ভিডিও পোস্ট করে দাবি করা হচ্ছে, ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ভেরিফিকেশনের নামে প্রতারণা করছে জামায়াত-শিবির। দেখুন এমন একটি ভিডিও এখানে

গত ২৪ জানুয়ারি 'সেই রাজাকার এই রাজাকার' নামের পেইজ থেকে একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়। ভিডিওটির ক্যাপশনে বলা হয়, "ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ভেরিফিকেশনের নামে জামাত শিবিরের প্রতারণা! জামাত শিবিরের সদস্যরা মিশরের মুসলিম ব্রাদারহুডের জঙ্গিদের সঙ্গে যোগসাজসে প্রতারণামূলকভাবে হাতিয়ে নিচ্ছে টাকা"।

দেখুন একটি স্ক্রিনশট--


ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ উক্ত পোস্টের সাথে থাকা ভিডিওটি যাচাই করে দেখেছে, ক্যাপশনের তথ্যের সাথে পোস্টের ভিডিওতে উল্লেখ করা তথ্যের কোনো মিল নেই।

প্রথমত, পোস্টের দাবির সাথে যেই ভিডিওটি যুক্ত করা হয়েছে সেখানে জামায়াত-শিবির সংক্রান্ত কোনো তথ্যের উল্লেখ নেই। এছাড়া ভিডিওটিতে পুলিশের বরাতে অনলাইন ব্ল্যাক মার্কেটে কেনাবেচায় জড়িত কিছু মিশরের হ্যাকারদের কথা এসেছে। কিন্তু সেখানে ব্রাদারহুডের সাথে কোনো সম্পর্কের কোনো উল্লেখ ভিডিওতে নেই।

তাছাড়া ভিডিওটির ব্যাপারে আরো খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এটি মূলত সময় টিভির একটি প্রতিবেদন। গত ২৪ জানুয়ারি প্রকাশিত সেই প্রতিবেদনটির ভিডিওটি দেখুন এখানে--


সময় টিভির উক্ত প্রতিবেদনেও জামায়াত-শিবির বা মুসলিম ব্রাদারহুডের জড়িত থাকা সংক্রান্ত কোনো তথ্যের উল্লেখ নেই।

অর্থাৎ, ভুল তথ্য যুক্ত করে সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনকে বিকৃতভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে ফেসবুক পেইজটিতে।

Claim Review :   ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ভেরিফিকেশনের নামে জামাত শিবিরের প্রতারণা!
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story