বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ায় প্রথম শতভাগ বিদ্যুতায়নের দেশ নয়

বিশ্ব ব্যাংকের ২০১৯ সালে সর্বশেষ হালনাগাদকৃত তথ্যে ভুটান, মালদ্বীপ ও শ্রীলঙ্কা শতভাগ বিদ্যুতায়নের দেশের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করার কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের একাধিক আইডি ও পেজ থেকে বিভিন্ন গ্রাফিক্স ছবি বা পোস্ট করে বাংলাদেশকে দক্ষিণ এশিয়ায় প্রথম শতভাগ বিদ্যুতায়নের দেশ দাবি করা হচ্ছে। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

গত ২২ মার্চ 'Subhagata Choudhury' নামের ফেসবুক আইডি থেকে পোস্ট করে লেখা হয়, "দক্ষিন এশিয়ায় প্রথম ১০০% বিদ্যুতের দেশ বাংলাদেশ।" স্ক্রিনশট দেখুন--

পোস্টটি দেখুন এখানে

পাশাপাশি, মূলধারার গণমাধ্যম দৈনিক প্রথম আলো এর ভেরিফাইড ফেসবুক পেজ থেকেও গত ২১ মার্চ একই দাবিতে করা একটি গ্রাফিক্স পোস্ট খুঁজে পাওয়া যায়। তবে একই দাবি সম্বলিত কোনো খবর তাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হতে দেখা যায়নি।

আবার, একই দাবিতে পোস্ট করতে দেখা গেছে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ থেকেও।

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, দাবিটি সঠিক নয়।

কী-ওয়ার্ড ধরে গুগল সার্চে করলে, বিশ্ব ব্যাংকের ওয়েবসাইটে "Access to electricity (% of population) - South Asia" শিরোনামে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর শতকরা বিদ্যুতায়নের একটি তালিকা খুঁজে পাওয়া গেছে। সর্বশেষ ২০১৯ সালে হালনাগাদ করা উক্ত তালিকায় ভুটান, মালদ্বীপ এবং শ্রীলঙ্কাকে দক্ষিণ এশিয়ার শতভাগ বিদ্যুতায়নের দেশের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনকারী দেশ হিসেবে দেখানো হয়েছে। স্ক্রিনশট দেখুন--

তালিকাটি দেখুন এখানে

অর্থাৎ যদি সম্প্রতি বাংলাদেশ শতভাগ বিদ্যুতের দেশের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করে থাকে তাহলে দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম দেশ হিসেবে নয় বরং বাংলাদেশ এই তালিকায় সর্বশেষ যুক্ত হয়েছে।

এছাড়া, পূর্বেই শ্রীলঙ্কার Ministry of Power / State Ministry of Solar, Wind and Hydro Power Generation Projects Development-এর সরকারি ওয়েবসাইটে তাদের শতভাগ বিদ্যুতায়নের বিষয় নিয়ে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া গেছে। পাশাপাশি, Asian Development Bank Institute-এর একটি কৌশলপত্রে মালদ্বীপের ও ভুটানের একটি সংবাদমাধ্যমে ২০১৯ সালে কিংবা তার আগে সেদেশের শতভাগ বিদ্যুতায়নের ঘোষনার উল্লেখ পাওয়া গেছে। অর্থাৎ, এক্ষেত্রেও বোঝা যায় শতভাগ মানুষের কাছে বিদ্যুৎ নিশ্চিতকরণে বাংলাদেশ প্রথম দক্ষিণ এশীয় দেশ নয়।

সার্চ করার পর, ২০২১ সালের ১৯ আগস্টে 'বিদ্যুতের আলোয় ৯৯.৯৯% মানুষ' শিরোনামে দৈনিক যুগান্তর অনলাইনে প্রকাশিত প্রতিবেদনেও বিশ্বব্যাংকের বরাতে শ্রীলংকা, মালদ্বীপ ও ভুটানে শতভাগ মানুষকে বিদ্যুতের আওতায় আনার তথ্যটির উল্লেখ করা হয়েছিল। স্ক্রিনশট দেখুন--

প্রতিবেদনটি পড়ুন এখানে

প্রসঙ্গত, গণমাধ্যমে গত ২১ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক ১ হাজার ৩২০ মেগাওয়াটের পায়রা তাপবিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধনের পর দেশের শতভাগ জনগণকে বিদ্যুতের আওতায় আনার ঘোষণা দেয়ার খবর প্রকাশিত হতে দেখা গেছে।

সুতরাং, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওই ঘোষণার পর বাংলাদেশ যদি শতভাগ বিদ্যুতায়ন নিশ্চিত করেও থাকে, সেটি দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম দেশ হিসেবে নয় বরং চতুর্থ দেশ হবে। অর্থাৎ, বাংলাদেশকে দক্ষিণ এশিয়ার প্রথম শতভাগ বিদ্যুতায়নের দেশ বলে করা দাবিটি সঠিক নয়।

Updated On: 2022-04-07T22:34:21+05:30
Claim :   দক্ষিন এশিয়ায় প্রথম ১০০% বিদ্যুতের দেশ বাংলাদেশ ।
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.