কুয়েতে সরকারিভাবে ফরাসি পণ্য বয়কট করা হয়নি

ফেসবুকে বহু পোস্টে ভুলভাবে দাবি করা হয়েছে, কুয়েত সরকার রাষ্ট্রীয়ভাবে ফরাসী পণ্য বর্জন করেছে।

সামাজিক মাধ্যমে একটি খবর দেখা যাচ্ছে যেখানে দাবি করা হচ্ছে ফ্রান্সের সকল পণ্য কুয়েত সরকার রাষ্ট্রীয়ভাবে বয়কট করেছে। দেখুন, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। এছাড়া আর্কাইভ লিংক এখানে, এখানেএখানে

এরকম একটি পোস্ট দেখা যাচ্ছে,Alamgir Hossain নামে একটি প্রোফাইল থেকে "বয়কট করুন, ইসলাম বিদ্ধ্যেশি নাস্তিকদের ৭১ টিভিকে" নামক গ্রুপে পোস্ট করা হয়--

"#আলহামদুলিল্লাহ, ফ্রান্সের সকল ধরনের পণ্য কুয়েত সরকার রাষ্ট্রীয়ভাবে বয়কট করেছে।

আমাদের দেশেও বয়কট করতে হবে।

"রাসূলের অপমানে যদি না কাঁদে তোর মন,

মুসলিম নয় মুনাফিক তুই, রাসূলের দুশমন"


পোস্টটি দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

কিন্তু যাচাই করে দেখা যাচ্ছে, ফ্রান্সে সম্প্রতি মহানবীর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের বিতর্কে পণ্য বয়কটের কোন উদ্যোগ কোন রাষ্ট্র এখন পর্যন্ত নেয়নি। বরং ব্যক্তিগতভাবে কুয়েত, মিশরসহ আরবের একাধিক দেশের সুপারশপগুলো নিজস্ব সিদ্ধান্তে ফরাসী পণ্য উঠিয়ে নিচ্ছে।

যেমন আল সাবাহ এর "Kuwaiti markets remove French products from shelves as boycott campaign grows on social media" অর্থাৎ "সামাজিক মাধ্যমে ক্যাম্পেইনের দরুণ ফরাসী পণ্য উঠিয়ে নিচ্ছে কুয়েতের মার্কেটগুলো" শিরোনামের একটি খবরে জানানো হয়, কুয়েতের সুপারশপগুলো মহানবীকে অবমাননায় ক্ষুব্ধ হয়ে ফরাসি পণ্য বয়কট করছে। সেখানে ফরাসী পণ্য বয়কটের কোনো রাষ্ট্রীয় উদ্যোগের কথা উল্লেখ করা হয়নি।

এছাড়া এএফপির বরাতে ডনের একটি খবরেও দেখা যায়, ফরাসি-পণ্য বয়কট করেছে কুয়েতের সুপারশপগুলো। বলা হচ্ছে, "Dozens of Kuwaiti stores are boycotting French products, with images on social media showing workers removing French Kiri and Babybel processed cheese from shelves"

অর্থাৎ কুয়েতি দোকানগুলো ফরাসী পণ্য বয়কট করছে। এছাড়াও তারা সেসব পণ্য উঠিয়ে নেয়ার ছবি সামাজিক মাধ্যমে পোস্ট করছে।

এভাবে কুয়েতের অন্তত পঞ্চাশটি প্রতিষ্ঠান ফরাসি পণ্য বর্জন করেছে বলে জানায় গালফ নিউজ

তবে কুয়েত ছাড়াও কাতারের একাধিক প্রতিষ্ঠান ফরাসী পণ্য বর্জনের ডাক দিয়েছে। প্রসঙ্গত, কাতার বিশ্ববিদ্যালয় 'ফরাসী কালচারাল উইক' বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে বলে জানায় আনাদুলু এজেন্সির একটি খবর

কুয়েত সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মহানবী (সাঃ) এর অবমাননার বিষয়ে নিন্দা জানালেও ফরাসী পণ্য রাষ্ট্রীয়ভাবে বয়কটের বিষয়ে কুয়েত সরকারের কোনো মহলের কোনো বিবৃতি বা মন্তব্য আমরা খুঁজে পাইনি।

তাই কুয়েত সরকারের রাষ্ট্রীয়ভাবে ফরাসী পণ্য বর্জন করার খবরটি বিভ্রান্তিকর।

Updated On: 2020-10-26T18:28:02+05:30
Claim Review :   কুয়েত সরকার রাষ্ট্রীয়ভাবে ফরাসী পণ্য বর্জন করেছে।
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story