কানাডিয়ান নারীর ইসলাম গ্রহণ নিয়ে বিভ্রান্তিকর খবর

খবরে প্রকাশিত নারী প্রায় ১৫ বছর আগে ইসলাম গ্রহণ করেছেন বলে নিশ্চিত হয়েছে বুম বাংলাদেশ।

''গবেষণা করতে গিয়ে কানাডিয়ান নারীর ইসলাম গ্রহণ'' শিরোনামে একটি খবর মূলধারার সংবাদ মাধ্যম বাংলাদেশ প্রতিদিন ও অন্যান্য অনলাইন পোর্টালে প্রকাশ করা হয়েছে। তুরস্কের ডেইলী সাবাহর সূত্র উল্লেখ করে প্রকাশিত সংবাদগুলো দেখুন এখানে, এখানেএখানে


সংবাদমাধ্যমের সূত্র ধরে ফেসবুকেও বিভিন্ন পেজ ও গ্রুপে খবরটি শেয়ার করা হচ্ছে।


আরেকটি পোস্ট দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:
বুম বাংলাদেশ সংবাদে প্রকাশিত নারী জেনি মোলেন্ডিক ডিভলিলির নামের কীওয়ার্ড ও ডেইলী সাবাহর সূত্রে দেখতে পেয়েছে যে কানাডিয়ান বংশোদ্ভূত এই নারী সম্প্রতি ইসলাম গ্রহণ করেননি। তিনি ইসলাম গ্রহণ করেছেন ২০০৬ সালের ১৪ মে।
ডেইলী সাবাহ মূলত গত ১৮ ফেব্রুয়ারী ''Muslim Canadian mother simplifies religion for children'' শিরোনামে তাকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। প্রতিবেদন অনুসারে ৯ বছর ধরে তুরস্কে বসবাসরত ইংরেজী ও সাংকেতিক ভাষার এই শিক্ষিকা ইসলামকে সহজভাবে শিখানোর জন্য শিশুদের জন্য উপযোগী করে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে বিভিন্ন পোস্ট তৈরী করছেন। তিনি ইসলামের বিভিন্ন বিষয়াবলী ও মুহাম্মদ (স) এর জীবনঘনিষ্ঠ বিষয় নিয়ে শিশুদের জন্য কন্টেন্ট তৈরী করেন। তার এই প্রয়াস এবং ইসলাম গ্রহণ পরবর্তী বিভিন্ন ব্যক্তিগত ও পারিবারিক অভিজ্ঞতা নিয়েই প্রতিবেদনটি করা হয়েছে।
তাছাড়া ডেইলী সাবাহ মূল প্রতিবদন করেনি, তারা তুরস্কের আনাদলু এজেন্সীর বরাতে প্রকাশ করেছে।
বুম বাংলাদেশ একই শিরোনামের আনাদলু এজেন্সীর প্রতিবেদনটিও খুঁজে পেয়েছে। দেখুন এখানে

উল্লেখ্য, ২০০৬ সালে ইসলাম গ্রহণের পর সামি ডিভলেলির সাথে তার দেখা হয় এবং বিয়ে করেন। ২০১২ সালে তার সন্তানদের মুসলিম দেশে বড় করার জন্য এবং তারা যাতে আজান শুনতে পায় এজন্য এই দম্পতি তুরস্কের ইস্তাম্বুলে পাড়ি জমান।
Claim Review :   গবেষণা করতে গিয়ে কানাডিয়ান নারীর ইসলাম গ্রহণ
Claimed By :  News Outlets
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story