দুই টাকার নোট কি বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর নোট?

আট বছর আগের অসমর্থিত একটি সূত্রকে ব্যবহার করে দুই টাকার নোটকে বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর নোট বলে দাবী করা হচ্ছে।

সম্প্রতি কিছু অনলাইন পোর্টালে ও সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে বাংলাদেশী মুদ্রার দুই টাকার নোটকে 'বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর নোট' বলে একটি খবর প্রকাশিত হয়েছে।। ২০১২ সালে রাশিয়ার একটি বিনোদন পত্রিকার জরিপের ফলাফলের খবরকে সূত্র হিসেবে উল্লেখ করে বলা হয়, সেখানে প্রথম হয়েছিল বাংলাদেশের দুই টাকার নোট। প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় হয়েছিল সাও টোমের ৫০ হাজার মূল্যমানের ডোবরা নোট, তৃতীয় ও চতুর্থ স্থান অধিকার করেছিল যথাক্রমে বাহামার ১ ডলারের নোট এবং বাহরাইনের ৫ দিনারের নোট।

একটি অনলাইন পোর্টালের এরকম একটি প্রতিবেদন দেখুন।

আর্কাইভ দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:
অনুসন্ধানে দেখা যায়, প্রথমত: ২০১২ সালে দেশীয় কিছু সংবাদমাধ্যমে দুই টাকার নোট বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর নোট এরকম একটি খবর প্রকাশিত হয়। বাংলানিউজের খবর দেখুন এখানে
বাংলানিউজের খবরে বলা হয়-
''দুই টাকার এই নোট বাংলাদেশের কথা বলে, চিত্রিত করে দেশের প্রকৃতিকে। কাগজের এই নোটটি নির্বাচিত হয়েছে পৃথিবীর সবেচেয়ে সুন্দর নোট হিসেবে ।
দ্বিতীয় স্থানে আছে সাও টোমের (São Tomé and Príncipe) ৫০ হাজার মূল্যমানের ডোবরা নোট। তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানে আছে যথাক্রমে বাহামার ১ ডলারের নোট এবং বাহরাইনের ৫ দিনারের নোট।
জরিপটি চালিয়েছে রাশিয়ার একটি বিনোদন বিষয়ক অনলাইন।
তালিকায় পঞ্চম স্থানে আছে জর্জিয়ার ১০ লারি নোট, ষষ্ঠ স্থানে ১০ হংকং ডলার, সপ্তম স্থানে ১০ কুক আইল্যান্ড ডলার, অষ্টম স্থানে ৫০ ইসরাইলি শেকেল, নবম স্থানে ২০ হাজার আইল্যান্ড ক্রোনা নোট এবং ও দশম স্থানে আছে ৫০ ফেরো আইল্যান্ড ক্রোনার্স নোট।
বিশ্বব্যাপী অনলাইন পাঠকদের কাছ থেকে মত নিয়ে রিপোর্ট তৈরি করেছে রাশিয়ার বিনোদন আউটলেটটি।
তাদের তালিকায় একাদশ থেকে বিংশ অবস্থানে আছে নিউজিল্যান্ড, রোমানিয়া, মালদ্বীপ, সিঙ্গাপুর, কমোরোস, ফ্রেঞ্চ পলিনেশিয়া, সুইজারল্যান্ড, সুইডেন, জ্যামাইকা এবং জাপানের নোট|''
যদিও সকল খবরেই রাশিয়ান একটি বিনোদন পত্রিকার জরিপকে এর সূত্র হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে কিন্তু কোথাও পত্রিকার নাম কিংবা সেই সূত্রের লিঙ্ক দেয়া হয়নি। ইন্টারনেটে সার্চ করেও সেই ম্যাগাজিনের জরিপ সংক্রান্ত কোনো তথ্য নির্ভরযোগ্য সংবাদসূত্র থেকে পাওয়া যায়নি।

দ্বিতীয়ত: খবরটি ৮ বছরে আগের হওয়া সত্ত্বেও কিছু পোর্টাল নতুন করে খবর হিসেবে তা প্রকাশ করছে যা বিভ্রান্তিকর।

তৃতীয়ত: 'আন্তর্জাতিক ব্যাংক নোট সোসাইটি' প্রতি বছর আনুষ্ঠানিকভাবে 'ব্যাংক নোট অব দ্যা ইয়ার' ঘোষণা করে থাকে। ২০১৯ সালের 'ব্যাংক নোট অব দ্যা ইয়ার' নির্বাচিত হয় আরুবা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ১০০ ফ্লেরিনের ব্যাংকনোট।

কথিত রাশিয়ান যে অনলাইন ম্যাগাজিনের জরিপের বরাতে 'বাংলাদেশের দুই টাকার নোট বিশ্বসেরা' বলে দাবি করা হয়েছে সেটি ওই ম্যাগাজিনের কিছু অনলাইন পাঠকের জরিপে প্রাপ্ত মতামতের ভিত্তিতে। সেই জরিপে কতজন মানুষের মতামত নেয়া হয়েছে তার কোনো তথ্যও পাওয়া যায়নি খবরে।

একটি আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান কর্তৃক নিয়মিত 'বছরের সেরা ব্যাংক নোট' নির্বাচনের প্রক্রিয়া থাকার পরও একটি দেশের অখ্যাত একটি ম্যাগাজিনের অজ্ঞাত সংখ্যক পাঠকের ওপর চালানো জরিপের ভিত্তিতে কোনো একটি নোটকে মূল ঘটনার ৮ বছর পরও নতুন করে 'বিশ্বের সেরা নোট' বা 'বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর নোট' হিসেবে প্রচার করা বিভ্রান্তিকর। কারণ, এই সময়ের মধ্যে বছরে বছরে আরও অনেক ব্যাংক নোট 'আন্তর্জাতিক ব্যাংক নোট সোসাইটি' কর্তৃক 'বছরের সেরা নোট' হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে।
Updated On: 2020-10-14T15:23:20+05:30
Claim Review :   বাংলাদেশী দুই টাকার নোট বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর নোট
Claimed By :  Website, Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story