স্প্যানিশ রাজনীতিবিদের ছবি দিয়ে বিভ্রান্তিকর দাবি ও বক্তব্য প্রচার

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, ছবিটি কোন বায়োলজিক্যাল গবেষকের নয় বরং স্পেনের সাবেক কৃষিমন্ত্রীর; যা করোনা অতিমারী শুরুর আগে তোলা।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে একটি গ্রাফিক পোস্ট শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, স্প্যানিশ একজন বায়োলজিক্যাল রিসার্চার রাগে ক্ষোভে বলেছেন, যেহেতু ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসির মতো তারকারা বিজ্ঞানীদের চেয়ে বেশি আয় করেন সুতরাং তাদের কাছেই করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক খোঁজা উচিত। পোস্টে করা গ্রাফিক ছবিতে একজন নারীকে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলা অবস্থায় দেখা যায়। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এবং এখানে। আর্কাইভ পোস্ট দেখুন এখানে

গত ৩ নভেম্বর 'নাজমুল তালুকদার' নামের ফেসবুক আইডি থেকে করা পোস্টে সংযুক্ত গ্রাফিক ছবিতে লেখা রয়েছে "রাগে ক্ষোভে ফেটে পড়া স্পেনীশ বায়োলজিক্যাল রিসার্চার বলেছেন- এক মাসে একজন ফুটবলার কয়েক মিলিয়ন ইউরো আয় করে। আর একজন রিসার্চার আয় করে মাত্র ১৮০০ ইউরো। এক ছবিতে একজন ম্যুভি স্টার যা আয় করে - সারা জীবন গবেষনায় একজন গবেষক তার একশত ভাগের একভাগও আয় করেনা। আর এখন জীবন বাঁচাতে আপনি হন্য হয়ে ভাইরাসের প্রতিষেধক খুঁজছেন। যান না এখন মেসি, রোনাল্ডো, টমক্রুজের কাছে। ওরাই আপনার কিউর বের করে দিবে।"

"নেসেসিটির চেয়ে লাক্সারী যে পৃথিবীতে বড় হয়ে যায়, জীবন বাঁচানো মানুষদের চেয়ে বিনোদনের মানুষ সেলিব্রেটি হয়ে যায়, হাসপাতালের চেয়ে স্টেডিয়ামের গুরুত্ব বেড়ে যায়- সেই অসভ্য সমাজেতো মানুষের বেঁচে থাকারই কোনো অধিকার নাই।" স্ক্রিনশট দেখুন-

পোস্টটি দেখুন এখানে

ছবিটি ২০২০ সালেও সামাজিক মাধ্যমে ফেসবুক একই রকম দাবিতে পোস্ট করা হয়েছিলো। এরকম একটি পোস্টের স্ক্রিনশট দেখুন-

পোস্টটি দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, পোস্টে করা দাবিটি বিভ্রান্তিকর। প্রথমত, ছবিতে দৃশ্যমান নারী স্পেনের একজন সাবেক মন্ত্রী, বায়োলজিকাল গবেষক নন। দ্বিতীয়ত, ভাইরাল ছবিটিও করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার আগে তাঁর মরক্কো সফর সময়ে ধারণ করা।

রিভার্স ইমেজ সার্চের করলে, গ্রাফিক ছবির সাথে সংযুক্ত ছবিটি মরক্বো সরকারের (Kingdom of Morocco) ওয়েবসাইটে প্রকাশিত একটি প্রেস রিলিজে পাওয়া যায় যা ২০১৮ সালের ২৪ এপ্রিল প্রকাশ করা হয়েছে। অর্থাৎ ছবিটি ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার অনেক আগের। প্রেস রিলিজে ছবিতে দৃশ্যমান নারীর পরিচয় হিসাবে বলা হয়েছে, তিনি তৎকালীন স্পেনের কৃষি, মৎস্য, খাদ্য ও পরিবেশ মন্ত্রী ইসাবেল গার্সিয়া তেজেরিনা। তেজেরিনা তৎকালে মরক্কো সফর করছিলেন, ছবিটিও সে সময় ধারণ করা। স্ক্রিনশট দেখুন--

লিংক দেখুন এখানে

এই সূত্র ধরে সার্চ করা পর, M24TV নামের স্প্যানিশ ইউটিউব চ্যানেলে ২০১৮ সালের ২৪ এপ্রিল প্রকাশিত একটি ভিডিও সাক্ষাৎকার পাওয়া যায় যা দেখতে ফেসবুকে ছড়ানো ছবির অনুরূপ। ভিডিওর বর্ণনায় ও নারীর নাম গার্সিয়া তেজেরিনা বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া তিনি আর্জেন্টাইন ফুটবল তারকা লিওনেল মেসি কিংবা পর্তুগিজ তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে নিয়ে কোন মন্তব্যই করেননি।

প্রসঙ্গত কৃষি প্রকৌশলী এবং আইনজীবি গার্সিয়া তেজেরিনা ২০১৮ সালের জুনে স্পেনের সরকার পরিবর্তনের সাথে তার মন্ত্রীত্ব ত্যাগ করেন। ২০১৯ থেকে তিনি স্প্যানিশ সংসদে মাদ্রিদের ডেপুটি এবং পপুলার পার্টির একজন ডেপুটি সেক্রেটারি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

বুম বাংলাদেশের পক্ষ থেকে গার্সিয়া তেজেরিনার বক্তব্য নেয়ার জন্য তার টুইটারে যোগাযোগ করা হলে প্রতিবেদন প্রকাশ পর্যন্ত কোন প্রত্যুত্তর পাওয়া যায়নি। উল্লেখযোগ্য সংযুক্তি পাওয়া গেলে পরবর্তীতে প্রতিনেদনটি আপডেট করা হবে। এর আগে ২০২০ সালে দাবিটি ভাইরাল হলে এএফপি যাচাই করে বিভ্রান্তিকর সাব্যস্ত করেছিল।

সুতরাং স্প্যানিশ রাজনীতিবীদের ছবি জুড়ে বিভ্রান্তিকর উক্তি প্রচার করা হচ্ছে ফেসবুকে।

Claim :   রাগে ক্ষোভে ফেটে পড়া স্পেনীশ বায়োলজিকাল রিসার্চার বলেছেন
Claimed By :  Facebook post
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.