শিক্ষামন্ত্রীর নামে ভুয়া উক্তি প্রচার

"যে দেশে ধর্ষকের পক্ষে উকিল পাওয়া যায়। সেই দেশে ধর্ষন মুক্ত হবে কেমনে?" এমন কথা দীপু মনি বলেননি।

গত কয়েকদিন ধরে ফেসবুকে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির নামে একটি উক্তি ব্যাপকভাবে ছড়িয়েছে। দাবি করা হচ্ছে, মন্ত্রী বলেছেন, "যে দেশে ধর্ষকের পক্ষে উকিল পাওয়া যায়। সেই দেশে ধর্ষন মুক্ত হবে কেমনে?"

এমন কয়েকটি পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এখানে

গত ২৬ সেপ্টেম্বর "Munzereen Shahid" নামক একটি গ্রুপে Milad Hasan নামক আইডি থেকে করা পোস্টের স্ক্রিনশট দেখুন--



ফ্যাক্ট চেক:

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি এমন বক্তব্য দিয়েছেন কিনা তা অনলাইনে অনুসন্ধান করেছে বুম বাংলাদেশ।

প্রথমত, কোনো নির্ভরযোগ্য সংবাদমাধ্যমে তার এমন কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। চলমান সময়ে বাংলাদেশে ধর্ষণের একাধিক ঘটনা ঘটার প্রেক্ষিতে মন্ত্রী এমন কোনো কথা বলে থাকলে তা মূলধারার সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার কথা।

দ্বিতীয়ত, দীপু মনির ফেসবুক আইডিতেও সম্প্রতি তিনি এমন কোনো কথা বলেছেন বলে প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

তৃতীয়ত, বর্তমানে মন্ত্রীর নামে ছড়ানো এই উক্তি এর আগে একাধিক ব্যক্তির নামে ইন্টারনেটে ছড়িয়েছিলো।

যেমন ২০১৯ সালে প্রকাশিত এই ফেসবুক পোস্টে দেখা যাচ্ছে একই উক্তি সাবেক বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর স্ত্রী 'তাহসিনা রুশদী লুনা' এর নামে ছড়ানো হয়েছে।


তবে ২০১৯ সালেও একাধিক ফেসবুক পেইজ থেকে উক্তিটি ডা. দীপু মনির নামেও প্রচারিত হয়েছে। দেখুন এই লিংকে


সর্বপ্রথম কবে উক্তিটি ইন্টারনেটে আসে এবং কার নামে প্রচারিত হয়েছে তা নিশ্চিত করে বলা সম্ভব নয়। তবে অনুসন্ধানে দেখায যাচ্ছে, এই একই উক্তিকে নিজের উক্তি হিসেবে দাবি করে ২০১৮ সালে প্রচার করেছিলেন এক ফেসবুকার, যার আইডির নাম "দাগ থেকে যায়"।


উপরের বিশ্লেষণ থেকে দেখা যাচ্ছে, উক্তিটি শিক্ষামন্ত্রীর নামের সাথে যুক্ত করার ব্যাপারটি বানোয়াট ও ভিত্তিহীন।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের সংবিধানের ৩১ নং অনুচ্ছেদ অনুযায়ী প্রত্যেক ব্যক্তির আইনের 'আশ্রয়-লাভের অধিকার' আছে। সে হিসেবে একজন ধর্ষকের পক্ষে কোনো আইনজীবীর আদালতে দাঁড়ানো বিষয়টি ধর্ষকের আইনি ও সাংবিধানিক অধিকার। কারো সাংবিধানিক অধিকার পূর্ণ হওয়া নিয়ে আফসোস করার সুযোগ নেই।

Updated On: 2020-10-14T14:49:28+05:30
Claim Review :   যে দেশে ধর্ষকের পক্ষে উকিল পাওয়া যায়। সেই দেশে ধর্ষন মুক্ত হবে কেমনে: দীপু মনি
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story