মোদির সফল বাতিল হওয়ার দাবিটি ভিত্তিহীন

২০২০ সালে করোনার কারনে মোদির বাংলাদেশ সফর বাতিল করার বক্তব্যটি নতুন করে প্রচার করা হচ্ছে।

ফেসবুকে একটি ভিডিও দিয়ে দাবি করা হচ্ছে, বাংলাদেশে আসবেনা নরেন্দ্র মোদি। দেখুন এমন দুটি ভিডিও লিংক এখানে এবং এখানে

গত ১৭ মার্চ ২০২০ Holy time নামের পেইজ থেকে নরেন্দ্র মোদির একটি ভিডিও পোস্ট করে দাবি করা হয়, বাংলাদেশে আসছেন না নরেন্দ্র মোদি। ক্যাপশনে বলা হয়, বাংলাদেশে আসবেনা মোদী। বঙ্গবন্ধুর শতবর্ষ উপলক্ষে মুদীজীর দেয়া ঐতিহাসিক বক্তব্য।

ভিডিওটির প্রথম অংশে বলা হয়, আমাকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে সফরের দাওয়াত দিলেও করোনার কারণে আমি আসতে পারছিনা। দেখুন সেই পোস্টের স্ক্রিনশট--

পোস্টটি দেখুন এই লিঙ্কে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, ভিডিওটির ক্যাপশনটি বিভ্রান্তিকর। ইন্টারনেটে সার্চ করে দেখা গেছে, পোস্টের ভিডিওটি চ্যানেল আই এর ইউটিউব চ্যানেলে প্রথম পোস্ট করা হয় ২০২০ সালে। ১৭ মার্চ ২০২০ এ আপলোড করা ভিডিওটির শিরোনাম ছিল, 'বঙ্গবন্ধু বিগত শতাব্দীর অন্যতম মহান ব্যক্তিত্ব:নরেন্দ্র মোদী'।

দেখুন চ্যানেল আই এর সেই ভিডিওটি--

মূলত গত বছর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকার আসার কথা থাকলেও করোনা-প্রকোপের কারণে সফরটি পিছিয়ে যায়। পরবর্তীতে ভিডিওমাধ্যমে তিনি মুজিববর্ষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে বক্তৃতাটি দেন।

দেখুন ১১ মার্চ ২০২০ প্রথম আলোয় প্রকাশিত এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন--


উক্ত প্রতিবেদনে বলা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর মূল অনুষ্ঠানটি বাতিল হওয়ায় ভিডিও বার্তা দিবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের ২৬ মার্চ ঢাকায় আসছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। দেখুন '২৬ মার্চ ঢাকায় আসছেন মোদি' শিরোনামে একটি খবর। কিন্তু নতুন করে স্পফপ্র বাতিল করার কোন খবর কোনো মূলধারার খবরমাধ্যমে আসেনি।

অর্থাৎ ২০২০ সালের মোদির বাংলাদেশ সফর বাতিল হওয়ার খবর নতুন করে প্রচার করা হচ্ছে, যা বিভ্রান্তিকর।

Claim Review :   বাংলাদেশে আসবেন না মোদি
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story