ক্রিস্টিনা কোচ মহাকাশে একটানা সবচেয়ে বেশি দিন কাটানো মানুষ নন

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, ক্রিস্টিনা মহাকাশে ৩২৮ দিন কাটিয়েছেন তবে মহাকাশে তাঁর চেয়েও বেশি দিন কাটানো নভোচারী রয়েছেন।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের একাধিক পেজ থেকে একজন নভোচারীর ছবি শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, নভোচারী ক্রিস্টিনা কোচ প্রথম মানুষ হিসাবে মহাকাশে একটানা দীর্ঘদিন কাটানোর রেকর্ড গড়েছেন। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

গত ২ এপ্রিল 'Beauty Tips By Rodela' নামের ফেসবুক একাউন্ট থেকে একটি গ্রাফিক্স ছবি শেয়ার করা হয় যাতে লেখা হয়, "টানা ৩২৮ দিন মহাকাশ থেকে ফিরে এলেন নাসার মহাকাশচারী ক্রিস্টিনা কোচ। তিনিই প্রথম মানুষ্য প্রাণ যিনি কাটিয়ে এসেছেন ৩২৮ দিন মহাকাশে এবং সাথে গড়েছেন দীর্ঘদিন মহাকাশে কাটানোর রেকর্ড"। পোস্টটির স্ক্রিনশট দেখুন--

পোস্টটি দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, দাবিটি বিভ্রান্তিকর। ক্রিস্টিনা কোচ প্রথম মানুষ হিসাবে মহাকাশে একটানা দীর্ঘদিন কাটানোর রেকর্ডধারী নন। মূলত নারী হিসাবে তিনি এই রেকর্ডটি গড়েছিলেন ২০২০ সালে। তার আগে সম্মেলিতভাবে ২০১৬ সালে একাটানা সবচেয়ে বেশিদিন মহাকাশে থাকার রেকর্ডটি ছিল নভোচারী স্কট কেলি নামের এক ব্যক্তির। ৩৪০ দিন একটানা কাটানো কেলির রেকর্ডটি ভেঙ্গে পরবর্তীতে ২০২১ সালে মার্ক ভান্ডে হেই (Mark Vande Hei) একটানা আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে ৩৫৫ দিন থাকার রেকর্ড গড়েন।

কি-ওয়ার্ড ধরে সার্চ করার পর, ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানে ২০২০ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি "Christina Koch returns to Earth after record-breaking space mission" শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ক্রিস্টিনা আরও দুই সহ-মহাকাশচারীর সঙ্গে কাজাখস্তানের দেহেজকাজগানে ভোর ৪ টে ১২ মিনিটে (ইস্টার্ন স্ট্যান্ডার্ড টাইম) অবতরণ করেন। ক্রিস্টিনা কোচ প্রথম নারী হিসেবে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে একটানা ৩২৮ দিন অবস্থান করে এই রেকর্ড গড়েন। এর আগে নারী হিসাবে মহাকাশ স্টেশনে একটানা অবস্থানের রেকর্ডটি ছিলো পেগি উইটসনের। যিনি ২৮৯ দিনের অবস্থান করে রেকর্ড গড়েছিলেন। ন্যাশনাল অ্যারোনটিক্স অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (নাসা) ব্লগে ২০২০ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনেও ক্রিস্টিনা কোচের এই বিবরণ খুঁজে পাওয়া যায়। স্ক্রিনশট দেখুন--

প্রতিবেদনটি পড়ুন এখানে

অর্থাৎ প্রথম মানুষ হিসাবে নয় বরং ক্রিস্টিনা কোচের রেকর্ডটি ছিলো নারী হিসাবে।

আরও সার্চ করার পর, আমেরিকান সংবাদমাধ্যম বিজনেস ইনসাইডার-র ২০২২ সালের ১৫ মার্চে "NASA astronaut Mark Vande Hei breaks Scott Kelly's spaceflight record" শিরোনামে প্রকাশিত আরেকটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। এই প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৬ সালের মহাকাশচরী স্কট ক্যালি (পুরুষ) প্রথম ব্যক্তি হিসেবে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে একটানা ৩৪০ দিন অবস্থান করে গড়া রেকর্ডটি মার্ক ভান্ডে হেই ২০২১ সালে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে একটানা ৩৫৫ দিন অবস্থান করে ভেঙ্গে দিয়ে নতুন রেকর্ড গড়েন, যা এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত একটানা সর্বোচ্চ দিন অবস্থানের রেকর্ড। স্ক্রিনশট দেখুন--

প্রতিবেদনটি পড়ুন এখানে

২০২২ সালের ৩০ মার্চ প্রকাশিত নাসার প্রতিবেদনে সম্মেলিত রেকর্ডের একটি উল্লেখ পাওয়া যায়। স্ক্রিনশটটি দেখুন--

গ্রাফিক নাসার সৌজন্যে

অর্থাৎ ক্রিস্টিনা কোচ নারী হিসাবে একটানা আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে অবস্থান করে রেকর্ড গড়লেও এটি প্রথম মানুষ হিসাবে সর্বোচ্চ দিন একটানা অবস্থানের রেকর্ড নয়। এর আগেই নভোচারী স্কট কেলি ক্রিস্টিনার থেকে বেশিদিন থাকার রেকর্ড গড়েন। আবার সর্বোচ্চ থাকার রেকর্ডটিও ক্রিস্টিনার নয়, মার্ক ভ্যানডে হেই'র।

প্রসঙ্গত দফায় দফায় মোট ৬৬৫ দিন মহাকাশে থেকে কাজ করার রেকর্ড রয়েছে পেগি হুইটসনের (Peggi Whitson)। ২০১৭ সালে তিনি এই রেকর্ড গড়েন।

সুতরাং নভোচারী ক্রিস্টিনা কোচের ছবি দিয়ে বিভ্রান্তিকর দাবী করা হচ্ছে সামাজিক মাধ্যমে।

Claim :   টানা ৩২৮ দিন মহাকাশ থেকে ফিরে এলেন নাসার মহাকাশচারী ক্রিস্টিনা কোচ। তিনিই প্রথম মানুষ্য প্রাণ যিনি কাটিয়ে এসেছেন ৩২৮ দিন মহাকাশে এবং সাথে গড়েছেন দীর্ঘদিন মহাকাশে কাটানোর রেকর্ড
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.