ছবিটি এডিট করা, এটি কারাবন্দী অং সান সুচির নয়

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, ভিন্ন এক নারীর ছবিকে এডিট করে মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী সুচির চেহারা বসানো হয়েছে।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের একাধিক আইডি ও পেজ থেকে লোহার খাঁচায় বন্দী এক নারীর ছবি পোস্ট করে দাবি করা হচ্ছে, ছবিতে কারাবন্দী নারীই মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সুচি। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

গত ৮ ফেব্রুয়ারি 'Arif Bin Abdullah' নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে ছবিটি পোস্ট করে লেখা হয়েছে, "সিংহাসন থেকে কারাগারে এভাবেই একদিন সকল জালিম গোষ্ঠীর অবসান ঘটবে ইনশাআল্লাহ ৷" আর ছবিটির উপরে লেখা আছে "অং সাং সুচি"। পোস্টের স্ক্রিনশট দেখুন--

পোস্টটি দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, ছবিটি এডিট করা। মূলত, ভিন্ন এক নারীর ছবির মুখমণ্ডল এডিট করে সুচি'র চেহারা বসানো হয়েছে।

রিভার ইমেজ সার্চ করার পর, মূল ছবিটি একাধিক ওয়েবসাইটে খুঁজে পাওয়া গেছে। তন্মধ্যে, 'lsureveille.com' নামের একটি ওয়েব পোর্টালে " Women's prisons in need of major institutional reform" শিরোনামে একটি মতামত আর্টিকেলের সাথে ছবিটি প্রতীকী ছবি হিসাবে যুক্ত করতে দেখা যায়, যেখানে ছবিসূত্র হিসাবে 'Wikimedia' উল্লেখ করা হয়েছে।

আর্টিকেলটি পড়ুন এখানে

এই সূত্রধরে সার্চ করার পর, চিত্র, শব্দ ও অন্যান্য মাল্টিমিডিয়া ফাইলের উন্মুক্ত ভান্ডার উইকিমিডিয়া কমন্সে ( Wikimedia Commons) "File:Female prisoner shackled in her small cell.jpg" শিরোনামে মূল ছবিটি খুঁজে পাওয়া গেছে। ২০১৩ সালের ১২ জুলাই আপলোড করা করা ছবিটির বিবরণে লেখা হয়েছে: "Female prison inmate incarcerated inside a barred prison cell. This traditional version of a prison cell provides the inmate with a toilet, a bunk bed and basic items. The bars show a port used for providing food as well as for cuffing the inmate. The cell is predominantly designed for the prevention of escape."

ছবিটি দেখুন এখানে

অর্থাৎ ছবিটির উৎস বা ব্যক্তি সম্পর্কে বিস্তারিত না জানা গেলেও ইতিপূর্বে প্রতীকী হিসাবে ব্যবহার হয়ে আসা ছবিটি যে সুচি'র নয় সে ব্যাপারে নিশ্চিত হয়েছে বুম বাংলাদেশ।

সুতরাং ভিন্ন এক নারীর ছবির মুখমণ্ডল এডিট করে সুচি'র চেহারা বসিয়ে প্রচার করা হচ্ছে, যা বিভ্রান্তিকর।

Claim :   সিংহাসন থেকে কারাগারে এভাবেই একদিন সকল জালিম গোষ্ঠীর অবসান ঘটবে ইনশাআল্লাহ ৷
Claimed By :  Facebook post
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.