ব্রিটিশ চিকিৎসককে নিয়ে বিভ্রান্তিকর সংবাদ বাংলাদেশি মিডিয়ায়

বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ডাক্তার ফারজানা ছবি বিলবোর্ড স্থান পাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ভুল তথ্য পরিবেশিত হয়েছে।

বাংলাদেশের মূলধারার একাধিক সংবাদমাধ্যমে "যুক্তরাজ্যের বর্ষসেরা চিকিৎসক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ফারজানা" শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।

দৈনিক ইত্তেফাক, দৈনিক যুগান্তর, জাগোনিউজ, বণিকবার্তা, সময়নিউজ এসব সংবাদমাধ্যমে খবরটি প্রকাশের পর তা দ্রুতই ভাইরাল হয়ে যায়।


অন্যান্য কিছু গণমাধ্যমের পোস্ট দেখুন।



জাগোনিউজের প্রতিবেদনের একটি স্ক্রিনশট নিচে দেয়া হলো--


বাংলাদেশের সংবাদ প্রতিবেদনে কী দাবি করা হয়েছে?

বাংলাদেশি সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে ফারজানা ও সাফল্য সংক্রান্ত যেসব দাবি করা হয়েছে তার কয়েকটি হলো--

#যুক্তরাজ্যের বর্ষসেরা চিকিৎসক (জিপি অব দ্য ইয়ার) মনোনীত হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ফারজানা হুসেইন।

#এজন্য তাকে সম্মান জানাতে বিলবোর্ডে টানানো হয়েছে তার ছবি।

#এবার তিনি জাতীয় পর্যায়েও জিপি বা বর্ষসেরা চিকিৎসক মনোনীত হলেন।

#পুরস্কারটি প্রদান করেছে যুক্তরাজ্যের জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ক সংস্থা দ্য ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস (এনএইচএস)।

#যুক্তরাজ্যে বর্ষসেরা চিকিৎসকের বিলবোর্ডে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত ফারজানার স্থান হয়েছে।

ফ্যাক্ট চেক:

প্রথমত, ফারাজানা "যুক্তরাজ্যের বর্ষসেরা চিকিৎসক" নির্বাচিত হননি।

দ্বিতীয়ত, তার ছবি যুক্তরাজ্যে বিলবোর্ড স্থান পাওয়ার কারণ এটা নয় যে, তিনি 'বর্ষসেরা চিকিৎসক' নির্বাচিত হয়েছেন।

তৃতীয়ত, ফারজানা ২০১৯ সালে Pulse General Practitioner of the Year নামে একটি অ্যাওয়ার্ডে ভূষিত হয়েছিলেন। এটি "যুক্তরাজ্যের জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ক সংস্থা দ্য ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস" কর্তৃক প্রদানকৃত কোনো "পুরস্কার" নয়। বরং ব্রিটেনের "জেনারেল প্রাকটিশনার"দের (চিকিৎসক) পেশাগত বিষয়াদি নিয়ে প্রকাশিত সাময়িকী "পালস ম্যাগাজিন" প্রতিবছর এই অ্যাওয়ার্ডটি প্রদান করে থাকে। এই অ্যাওয়ার্ডটি যুক্তরাজ্যের সব চিকিৎসকদের মধ্যে 'সেরা চিকিৎসক' নির্বাচিত করতে দেয়া হয় না। বরং দেশটিতে চিকিৎসকদের মধ্যে যে অংশকে 'জেনারেল প্রাকটিশনার' হিসেবে অভিহিত করা হয় তাদের মধ্য থেকে নানান বিবেচনায় ভালো পারফরমেন্স করা একজনকে এটি দেয়া হয়। "যুক্তরাজ্যের বর্ষসেরা চিকিৎসক" বললে দেশটিতে থাকা সব ধরনের চিকিৎসকদের মধ্যে 'সেরা চিকিৎসক' হিসেবে মনে করার বিভ্রান্তি তৈরি হয়। এ ধরনের কোনো উপাধি বা অ্যাওয়ার্ড যুক্তরাজ্যে প্রচলিত নেই।

ফারজানার ছবি বিলবোর্ডে স্থান পাওয়ার কারণ:

চলমান করোনা মহামারীতে ফ্রন্টলাইন যোদ্ধা হিসেবে যুক্তরাজ্যের ১২ জন স্বাস্থ্যকর্মীর ছবি তুলেন বিখ্যাত ফটোগ্রাফার John Rankin Waddell.

এই ১২ জনের মধ্যে চিকিৎসক, নার্স, হাসপাতালের পরিচ্ছন্নতাকর্মী, ফার্মাসিস্ট, প্যারাম্যাডিকরাও রয়েছেন। ডাক্তার ফারজানা হোসাইন রানকিনের ফটো তোলা সেই ১২ জনের একজন।

যুক্তরাজ্যের জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ (এনএইচএস) তাদের ৭২ তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষ্যে রানকিনের তোলা এসব ত্যাগী স্বাস্থ্যকর্মীদের সম্মান জানাতে এই ১২ জনের ছবি নিজেদের ওয়েবসাইটে এবং দেশের বিভিন্ন স্থানে বিলবোর্ডে প্রকাশ করেছে।

বাংলাদেশে ব্রিটিশ হাইকমিশনের ফেসবুক পেইজেও ফারজানার প্রতি সম্মান জানিয়ে তার ছবিওয়ালা একটি বিলবোর্ডের ছবি পোস্ট করা হয়েছে।


পোস্টটিতে বলা হয়, 'ড. ফারজানা হোসাইনের প্রতি সম্মান, যিনি একজন জেনারেল প্র্যাকটিশনার, একই সাথে এনএইচএসের একজন স্টাফ। এনএইচএসের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ও কোভিড-১৯ মহামারীর সময় ফ্রন্টলাইন কর্মকর্তা হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখার জন্য সম্মান জানাতে তার ছবি লন্ডনের বিলবোর্ডে টানানো হয়েছে।
আজকের এনএইচএসের পেছনে যারা অবদান রেখেছেন তাদের সবাইকে ধন্যবাদ।'
'London GP among staff photographed to mark 72 years of the NHS' শিরোনামে জিপি অনলাইনের এ সংক্রান্ত খবরটি দেখুন এখানে। বাংলাদেশের জনপ্রিয় ইংরেজি দৈনিক ডেইলি স্টারও প্রকৃত খবর প্রকাশ করেছে।

Updated On: 2020-10-15T23:46:21+05:30
Claim :   যুক্তরাজ্যের বর্ষসেরা চিকিৎসক হওয়ায় বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ডাক্তার ফারজানার ছবি বিলবোর্ডে প্রকাশ
Claimed By :  Media Outlets
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.