ব্লু জাভা বানানা বা কলার এই ছবিটি ফটোশপে এডিট করা

এই জাতের কলার উপরের রং পাকার আগে হালকা নীলাভ হলেও পাকার পর সাধারণ কলার মত হালকা হলুদ রং ধারণ করে ও ভেতরের অংশ সাদা থাকে।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের একাধিক আইডি ও পেজ থেকে এক বা একাধিক ছবি শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, এটি ব্লু জাভা নামে একধরণের কলার ছবি যেটির খোসা এবং ভিতরের খাওয়ার যোগ্য অংশটির রং নীল। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

গত ২০২১ সালের ৩১ অক্টোবর 'Md Nazim' নামের একটি আইডি থেকে দুটি ছবি শেয়ার করে লেখা হয়, 'জাভা কলা । নীল রঙের এই কলা ice ক্রিম কলা হিসাবে ও পরিচত। এটি অত্যন্ত বিরল প্রজাতির ফল।মূলত দক্ষিণ এশিয়াতে এই কলা পাওয়া যায় । শরীরের জন্য উপকারী এই কলা জিরো ডিগ্রি তাপমাত্রায় ও টিকে থাকতে পারে ।' স্ক্রিনশট দেখুন---


ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, ব্লু জাভা বানানা বা কলার আলোচ্য ছবিটি ফটোশপে এডিট করা। প্রকৃতপক্ষে এই কলার রং ছবিটির মত নীল নয়। বরং এই জাতের কলা পাকার আগে সবুজ রংয়ের খোসার উপরে হালকা নীলাভ একটি আস্তরণ থাকে এবং পাকার পর সাধারণ কলার মত হালকা হলুদ রং ধারণ করে ও ভেতরের অংশও সাদা হয়।

কি-ওয়ার্ড সার্চ করে দেখা যায়, যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের 'miamifruit' নামের একটি অনলাইন শপ তাদের ইন্সটাগ্রাম পেজে প্রি-অর্ডার অর্ডার নেওয়ার জন্য ব্লু জাভা কলার ছবি পোস্ট করেছে। ওই ছবিতে দেখা যায়, ব্লু জাভা কলার গায়ে নীল রংয়ের পাউডারের মত হালকা আস্তরণ লেগে থাকলেও কলার মূল রং সবুজ। স্ক্রিনশট দেখুন--


এদিকে, আলোচ্য ছবিটি নিয়ে প্রকৃত সত্য উদঘাটনে মিয়ামি ফ্রুট এর সাথে যোগাযোগ করেছে যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক গণমাধ্যম ইউএসএ টুডে। ইউএসএ টুডে'র প্রকাশিত এ সংক্রান্ত একটি ফ্যাক্ট চেকিং প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মিয়ামি ফ্রুট এর পক্ষ থেকে তাদেরকে জানানো হয়, ব্লু জাভা কলা পাকার আগে 'ব্লুয়িস গ্রিন' থাকে এবং পাকার পর তা হলুদ রং ধারণ করে ও ভেতরের অংশ সাদা রংয়ের হয়ে থাকে। দেখুন ওই প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট--

প্রতিবেদনটি দেখুন এখানে

এছাড়া, মিয়ামি ফ্রুট র এর ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে ইন্টারনেটে পাওয়া যাওয়া ব্লু জাভা কলার বহু ছবি ফটোশপে এডিট করা, তবে তাদের দেয়া ছবি এডিট করা নয়। ইউএসএ টুডেকে দেয়া একই তথ্য এখানেও তারা উল্লেখ করেছে। দেখুন স্ক্রিনশট--

মিয়ামি ফ্রুটের ওয়েব পেজটি দেখুন এখানে

আরো সার্চ করে ইউটিউবে 'BLUE JAVA BANANA (Ice Cream Banana) : Is There Really a BLUE Banana That Tastes Like ICE CREAM?' শিরোনামে একটি ভিডিও খুঁজে পাওয়া যায় যেখানে ব্লু জাভা কলার খোসা এবং ভক্ষণযোগ্য অংশটির রং সরাসরি দেখানো হয়েছে। ভিডিওটি দেখুন--

উক্ত ভিডিওটিতে ইউটিউবার বলেছেন, তিনি অনলাইন থেকে ব্লু জাভা বানানা অর্ডার করেন। তিনি ধারণা করেছিলেন যে, কলাগুলো নীল রংয়ের হবে। কিন্তু বক্স খুলে তিনি দেখেন কলাগুলো হলুদ রংয়ের। তবে, ভিডিওতে দেখানো হয়েছে কীভাবে এডিট করে কলার খোসার রং বদলে দিয়ে অন্য রংয়ের দেখানো যায়। এছাড়া, কলার খোসা ছাড়িয়েও কলার ভিতরের অংশটিও এতে দেখানো হয়েছে।

আলোচ্য ছবিটি নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে ব্লু জাভা কলা নিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে 'They taste just like ice cream': People cannot get enough of blue Java bananas; have you tried them? শিরোনামে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন পেয়েছে বুম বাংলাদেশ। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, Musa balbisiana ও Musa acuminata নামের দুটি কলার জাতের মিশ্রনে ব্লু জাভা কলার হাইব্রিড জাতটির উৎপত্তি হয়েছে। যে জাতের গাছ মাইনাস তাপমাত্রায়ও টিকে থাকতে পারে। এছাড়া, রং নিয়ে বলা হয়েছে, কলাটি যখন পাকে তখন তা হালকা হলুদ রং ধারণ করে। দেখুন স্ক্রিনশট--


বিষয়টি প্রমাণিত যে, ব্লু জাভা কলার উপরের রং পাকার আগে হালকা নীলাভ হলেও, পাকার পর সাধারণ কলার মত হলুদ রং ধারণ করে ও ভেতরের অংশ সাদা থাকে। অর্থ্যাৎ ব্লু জাভা কলা বলে প্রচারিত আলোচ্য ছবিটি ওই জাতের কলার প্রকৃত ছবি নয় বরং ফটোশপে এডিট করা।

সুতরাং ফটোশপের মাধ্যমে তৈরি করা ছবিকে ব্লু জাভা কলার ছবি বলে প্রচার করা হচ্ছে ফেসবুকে, যা বিভ্রান্তিকর।

Updated On: 2022-05-19T00:09:35+05:30
Claim :   জাভা কলা । নীল রঙের এই কলা ice ক্রিম কলা হিসাবে ও পরিচত। এটি অত্যন্ত বিরল প্রজাতির ফল।
Claimed By :  facebook post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.