সিলেটের বন্যার দাবি করে প্রচার হলো সিরাজগঞ্জের পুরোনো ভিডিও

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, ২০২০ সালের জুলাই মাসে সিরাজগঞ্জে যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি এবং নদী পাড় ভাঙনের ভিডিও এটি।

সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের একাধিক পেজ থেকে একটি ভিডিও শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে, ভিডিওটি সিলেটের সাম্প্রতিক বন্যার। এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

গত ২০মে 'Kaji Nor Nobi Mithu' নামের ফেসবুক আইডি থেকে ভিডিওটি পোস্ট করে ক্যাপশনে লেখা হয়, "সিলেটের বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ রুপ ধারন করেছে। অনেক মানুষ পানি বন্দী হয়ে পড়েছে......"। স্ক্রিনশট দেখুন--

পোস্টটি দেখুন এখানে

ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, ভিডিওটির ক্যাপশনে করা দাবিটি সঠিক নয়। ভিডিওটি সিলেটের নয় বরং ২০২০ সালে সিরাজগঞ্জে যমুনা নদী ভাঙনের।

ভিডিওটি থেকে কী-ফ্রেম কেটে সার্চ করার পর, ২০২০ সালের ২৫ জুলাই 'আলোকিত সিরাজগঞ্জ' নামের একটি ফেসবুক পেজে "সিরাজগঞ্জ সদরের সিমলায় ভয়াবহ নদী ভাঙন, নদী গর্ভে বিলীন" শিরোনামে ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া গেছে। ফেসবুকে বিভ্রান্তিকর দাবিতে ভাইরাল ভিডিওটির সাথে এই ভিডিওটির হুবহু মিল পাওয়া যায়। তবে ফেসবুকে বিভ্রান্তিকর দাবিতে ভাইরাল ভিডিওটিতে ফুটেজগুলো আগে পরে করে দেয়া হয়েছে। ভিডিওটি দেখুন--

'আলোকিত সিরাজগঞ্জ' নামের একটি ফেসবুক পেজে ভিডিওটিতে বেসরকারি সম্প্রচার মাধ্যম সময় টেলিভিশনের লোগো দেখতে পাওয়া যায়। যা থেকে ধারনা করা যেতে পারে ভিডিওটি সময় টেলিভিশনে প্রচারিত হয়েছিল।

এই সূত্র ধরে সার্চ করার পর, সময় টেলিভেশনে ২০২০ সালের ২৪ জুলাই রাত ১১টার বুলেটিন সময় সংবাদে প্রচারিত ভিডিওটি ইউটিবে খুঁজে পাওয়া যায়। সময় সংবাদের এই ভিডিওটির ১ মিনিট ৫৫ সেকেন্ড থেকে দেখুন--

সার্চ করার পর, সম্প্রচারমাধ্যম আরটিভি'র অনলাইন সংস্করণে ২০২০ সালের ২৬ জুলাই "নদী ভাঙনে নিঃস্ব হওয়া মানুষের কান্নায় ভারী হচ্ছে পরিবেশ" শিরোনামে এই নদী ভাঙ্গন সংক্রান্ত প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। প্রতিবেদনে বলা হয়- "যমুনার অস্বাভাবিক পানি বৃদ্ধি ও প্রবলস্রোতে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ছোনগাছা ইউনিয়নের শিমলা পাঁচঠাকুরীর মাটির অংশসহ কংক্রিটের পুরোটাই নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার সঙ্গে ভয়াবহ ভাঙনে মুহূর্তের মধ্যে পাঁচঠাকুরী পাঁচপাড়া গ্রামের আড়াই শত বাড়িঘর, জমিজমা, মসজিদ, মুরগির খামার, গাছাপালা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ভাঙন আতংকে আশপাশের আরও কয়েকটি গ্রামের সহস্রাধিক বাড়ি ঘরের মানুষেরা। ভয়াবহ নদী ভাঙনে নিঃস্ব-সর্বস্বান্ত অসহায় মানুষদের বুকফাটা কান্না আর আহাজারিতে পরিবেশ ভারী হয়ে উঠছে। শুক্রবার (২৪ জুলাই) দুপুর থেকে আজ রোববার (২৬ জুলাই) সকাল পর্যন্ত সদর উপজেলার সিমলা ও পাঁচঠাকুরি এলাকার প্রায় ১০০ মিটার বাঁধ নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।" স্ক্রিনশট দেখুন--

প্রতিবেদনটি পড়ুন এখানে

অর্থাৎ সিলেটের বন্যার নয় বরং সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার ছোনগাছা ইউনিয়নের শিমলা পাঁচঠাকুরীর এলাকার যমুনা নদীর অস্বাভাবিক পানি বৃদ্ধি ও প্রবলস্রোতের ফলে নদী ভাঙ্গনের ভিডিও এটি।

প্রসঙ্গত গণমাধ্যমে প্রকাশিত সর্বশেষ খবর অনুযায়ী টানা বর্ষণ আর পাহাড়ি ঢলের কারণে সিলেটে গত এক সপ্তাহ ধরে চলা ভয়াবহ বন্যার পানি ধীরে ধীরে কমতে শুরু করেছে।

সুতরাং সিরাজগঞ্জের যমুনা নদীর ভাঙ্গন ও পানি বৃদ্ধির পুরোনো ভিডিও সিলেটের বন্যার দাবি করে প্রচার করা হচ্ছে সামাজিক মাধ্যমে, যা বিভ্রান্তিকর।

Claim :   সিলেটের বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ রুপ ধারন করেছে
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.