পুরোনো ছবি শারজায় বিমান দুর্ঘটনার দাবিতে প্রচার

বুম বাংলাদেশ দেখেছে, ফেসবুকে প্রচারিত ছবিটি ২০১৬ সালে দুবাইতে একটি বিমান দুর্ঘটনার এবং হতাহতের সংখ্যাটি বানোয়াট।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের বিভিন্ন আইডি, পেজ ও গ্রুপে একটি ছবি পোস্ট করে দাবি করা হচ্ছে, পাকিস্তান থেকে আসা একটি উড়োজাহাজ শারজাহ্ বিমানবন্দরে অবতরণের সময় দুর্ঘটনার কবলে পড়ে শতাধিক মানুষ হতাহত হয়েছেন। এমন কয়েকটি পোস্টের লিংক দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

আজ ১৫ই এপ্রিল শুক্রবার 'Jamal Hossain' নামের একটি ফেসবুক আইডি উড়োজাহাজ দুর্ঘটনার একটি ছবি পোস্ট করে বলা হয়, "পাকিস্তান থেকে আসা ( 521 ) Emarat Airlines এর একটি বিমান Sharjah Airport এ লেন্ডিং গিয়ার ব্লক হয়ে যাওয়ার কারনে অবতরণ করার সময় মাটিতে আছড়ে পড়ে ! ২০৮ জন যাত্রীর মধ্যে ১৭৪ জন মৃত্যু বরণ করেন, এবং ৩৪ জন প্রাণে বাঁচলেও তাদের অবস্থা গুরুতর..-হে আল্লাহ পবিত্র মাহে রমজানে আহতদের সুস্থতা দান করুন,মৃতদের জান্নাত বাসি হিসেবে কবুল করুন.."। পোস্টটির স্ক্রিনশট দেখুন--


ফ্যাক্ট চেক:

বুম বাংলাদেশ যাচাই করে দেখেছে, দাবিটি মিথ্যা ও বানোয়াট। পোস্টের সাথে প্রচারিত ছবিটি ২০১৬ সালে দুবাইয়ে একটি বিমান দুর্ঘটনার ছবি এবং হতাহতের সংখ্যাটি বানোয়াট। এছাড়া, শারজায় সম্প্রতি কোনো বিমান দুর্ঘটনার খবর গণমাধ্যমের পাওয়া যায়নি।

পোস্টে প্রচারিত ছবিটি রিভার্স ইমেজ সার্চ করলে ছবিটি অসংখ্য আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরের সাথে পাওয়া গেছে। ছবিটি ২০১৬ সালের ৩ আগস্ট এমিরেটস্ এয়ারলাইন্সের একটি বিমান দুবাই বিমানবন্দরে অবতরণের সময় আগুন লেগে গেলে অগ্নিনির্বাপনের সময়ে তোলা। ওই দুর্ঘটনায় যাত্রীদের মালামাল ক্ষতিগ্রস্ত হলেও বিমানটিতে ১৮ জন ক্রু সহ ৩০০ আরোহীর সবাই নিরাপদে বিমান থেকে নামতে পেরেছিল বলে খবর প্রকাশিত হয়েছে। বাংলাদেশের ইংরেজি দৈনিক ডেইলি সানে "Emirates plane crash-lands at Dubai airport, passengers safe" শিরোনামে প্রকাশিত এ সংক্রান্ত খবরের স্ক্রিনশট দেখুন--


উক্ত ছবিটি সহ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত এই খবরটি দেখুন এখানে, এখানে এবং এখানে

ওই দুর্ঘটনায় কোন প্রাণহানির ঘটনা না ঘটলেও যাত্রীদের মালামাল নষ্ট হওয়ার কারণে ক্ষতিপূরণ বাবদ প্রত্যেক যাত্রীকে সাত হাজার ডলার করে ক্ষতিপূরণ প্রদান করে এমিরেটস্ এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ। এ নিয়ে এনডিটিভি'র অনলাইন ভার্সনে আলোচ্য ছবিটি সহ প্রকাশিত একটি খবরের স্ক্রিনশট দেখুন--

এনডিটিভির খবরটি দেখুন এখানে

এদিকে, বিশ্বের কোথাও কোন বিমান দুর্ঘটনা ঘটলে কিংবা এতে হতাহতের ঘটনা ঘটে থাকলে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে স্বাভাবিকভাবেই তা খবর হওয়ার কথা। কিন্তু একাধিকবার বিভিন্ন কী ওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করার পরও গতকাল বা আজ কিংবা সম্প্রতি শারজায় কোন বিমান দুর্ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক কোনো গণমাধ্যমে।

অর্থাৎ ২০১৬ সালে দুবাইয়ে অবতরণের সময় এমিরেটস্ এয়ারলাইন্সের একটি বিমানের দুর্ঘটনার ছবি এটি। সাম্প্রতিক কোন বিমান দুর্ঘটনার নয়।

সুতরাং ৬ বছর পুরোনো ছবি দিয়ে সম্প্রতি শারজায় বিমান দুর্ঘটনায় শতাধিক হতাহতের খবর প্রচার করা হচ্ছে ফেসবুকে, যা বিভ্রান্তিকর।

Updated On: 2022-04-15T18:21:57+05:30
Claim :   শারজায় বিমান দুর্ঘটনায় ১৭৪ জনের মৃত্যু।
Claimed By :  Facebook post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.